১২ ডিসেম্বর ২০১৯

লবণের তালাশে ঘর থেকে বের হলো মহিলারাও

লবণ কিনে বাসায় ফিরছেন এক গৃহিনী। মতিঝিল এলাকা থেকে তোলা ছবি - ছবি : নয়া দিগন্ত

মহল্লার অলি-গলির মুদি দোকানে ভিড় করছেন ক্রেতারা। লবণের দাম বাড়বে এমন গুজবে মঙ্গলবার দুপুরের পর থেকেই দেশের বিভিন্ন এলাকায় লবণ কেনার ধুম পড়ে যায়। ঘরে লবণ থাকার পরে সংকট হতে পারে এমন আশঙ্কায় শুধু পুরুষ নন, মহিলারাও ঘর থেকে বের হন লবণের তালাশে। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় দেখা গেছে লবণ কেনার হিড়িক।

মতিঝিল এজিবি কলোনির কাঁচা বাজারে গিয়ে দেখা গেল প্রতিটি দোকানেই লবণ ক্রেতাদের ভিড়। অনেকে ৫-৭কেজি করে লবণ কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। কিছু দোকানে লবণের মজুদও বিকেলের আগেই শেষ হওয়ার কথা জানালেন দোকানিরা।

এজিবি কলোনির নোয়াখালি জেনারেল স্টোরে লবণ কিনতে এসেছেন বেদানা বিবি। তিনি জানালেন দাম বাড়ার আশঙ্কায় ৫ কেজি লবণ কিনে রাখছেন।

বেদানা বিবির মতো আরো অনেকেই এই বাজারে এসেছেন লবণ কিনতে। রজব আলী নামের এক ক্রেতা জানালেন, বাসা থেকে তার বউ ফোন করে জানিয়েছেন, মহল্লার কোনো দোকানেই লবণ পাওয়া যাচ্ছে না। তাই বাজার থেকেই ৫ কেজি লবণ নেয়ার কথা জানিয়েছেন।

সোলাইমান নামের এক দোকানদার জানালেন, আগে থেকে তার দোকানে লবণের অতিরিক্ত কোনো মজুদ ছিলো না। দুপুরের পর থেকে ৩ ঘন্টায় তার দোকানের ৫০-৫৫কেজি লবণের পুরোটাই বিক্রি হয়ে গেছে।

এই দোকানি আরো জানান- বাড়তি দামে নয়, আগের বাজার দর প্রতি কেজি লবণ ৩৫ থেকে ৪০ টাকাতেই বিক্রি করছেন তিনি। তবে ক্রেতাদের মধ্যে স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি কেনার প্রবণতা লক্ষ্য করেছন এই দোকানদার।

অন্যদিকে কয়েকজন ক্রেতা জানান, তারা মহল্লার দোকান থেকে এক কেজি লবণ ১০০ টাকাতেও কিনেছেন। বেশি দামে কেন লবণ কিনেছেন এমন প্রশ্নে জবাবে তারা কোনো সদুত্তর দিতে পারেনি। ততে দাম বাড়তে পারে এমন আশঙ্কার কারণেই তারা বেশি করে লবণ কিনে রাখছেন বলে জানান।

রাজধানীর মুগদা, গোপিবাগসহ বেশ কিছু এলাকায় ঘুরেও দেখা গেছে লবনের বাড়তি কেনা-বেচা। অনেকেই দাম বৃদ্ধির আশঙ্কায় বেশি করে লবণ কিনে রাখছেন। যদিও সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, দেশে লবণের কোন সঙ্কট নেই। যে লবণ মজুদ আছে তাতে আরো দুই মাস চলবে গ্রাহক চাহিদা। তাই লবণের দাম বৃদ্ধির গুজবে কান না দিতে সকলকে অনুরোধ করা হয়েছে।


আরো সংবাদ