২৯ জানুয়ারি ২০২০

দুই পাতার ব্যাংক হিসাব খোলার ফরম চূড়ান্ত

১৫ দিনের মধ্যে প্রজ্ঞাপন জারির নির্দেশনা

দুই পাতার ব্যাংক হিসাব খোলার ফরম চূড়ান্ত করা হয়েছে। চূড়ান্তকৃত এই ফরম প্রজ্ঞাপন আকারে জারি করার জন্য গত মঙ্গলবার অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, ১৫ দিনের মধ্যে যেন এটি প্রজ্ঞাপন আকারে জারি করে তা সব তফসিলি ব্যাংকের কাছে পাঠিয়ে দেয়া হয়। ফরম সহজীকরণের ফলে আগামীতে শুধুমাত্র এক কপি ছবি ও জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর দিয়ে যে কেউ ব্যাংকে হিসাব খুলতে পারবেন।

জানা গেছে, বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকে আগামী সপ্তাহে এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হতে পারে। প্রজ্ঞাপনে ব্যাংকগুলোকে একটি নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে নতুন ফরমের মাধ্যমে ব্যাংক হিসাব খোলার নির্দেশনা দেয়া হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ব্যাংকে ব্যবহৃত ফরমগুলো সহজীকরণের জন্য গঠিত কমিটির সভাপতি আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের অতিরিক্ত সচিব এ.বি.এম রুহুল আজাদ গতকাল এই প্রতিবেদকে বলেন, ব্যাংকের হিসাব খোলার জন্য ফরম আমরা চূড়ান্ত করেছি। এটি দুই পাতার ফরম বলা হলেও তা মূলত এক পাতার (পৃষ্ঠার এপিঠ-ওপিঠ) ফরম বলা যেতে পারে। ফরমটি চূড়ান্ত করে তা ইতোমধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। এখন বাংলাদেশ ব্যাংক এটি প্রজ্ঞাপন আকারে জারি করে তা ব্যাংকগুলোর কাছে পাঠিয়ে দেবে। তিনি বলেন, এটি একটি যুগান্তকারী কাজ। কারণ বর্তমানে যেখানে ব্যাংক হিসাব খুলতে একজনকে ১৪ পাতার ফরম পূরণ করতে হয় এবং এই ফরম পূরণ বিষয়টি বেশ জটিল। অধিকাংশের পক্ষে একা পূরণ করা সম্ভব হয় না। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা এই জটিল ফরমকে অত্যন্ত সহজভাষায় দুই পাতায় নামিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছি। ফরম তৈরির কাজে বাংলাদেশ ব্যাংকসহ বিভিন্ন দেশী ও বিদেশী ব্যাংক আমাদের সহায়তাও করেছে।
জানা গেছে, ব্যাংক হিসাব খুলতে দুই পাতার ফরমে একজনকে মোট ২২টি ঘর পূরণ করতে হবে। এইগুলো হলো- হিসাবের শিরোনাম, হিসাবের প্রকৃতি, মুদ্রা (টিক চিহ্ন দিতে হবে) হিসাব পরিচালনা সংক্রান্ত ঘোষণা (টিক চিহ্ন), হিসাবধারীর নাম, জন্ম তারিখ, পিতার নাম, মাতার নাম, স্বামী/স্ত্রীর নাম, জাতীয়তা, লিঙ্গ, পেশা, মাসিক আয়, অর্থের উৎস, বর্তমান ঠিকানা, স্থায়ী ঠিকানা, পরিচিতিপত্র- জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর (অথবা-পাসপোর্ট নম্বর, জন্ম নিবন্ধন নাম্বার/অন্যান্য), পরিচয় প্রদানকারীর তথ্য (জাতীয় পরিচয়পত্র ছাড়া অন্যান্য পরিচিতিপত্র প্রদানের ক্ষেত্রে), প্রাথমিক জমার পরিমাণ, নমিনি সংক্রান্ত তথ্যাবলি, ঘোষণা ও স্বাক্ষর।
সূত্র জানায়, মন্ত্রিপরিষদ সচিবের সভাপতিত্বে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে গত ২২ আগস্ট অনুষ্ঠিত বার্ষিক উদ্ভাবনী কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নবিষয়ক পর্যালোচনা সভায় ব্যাংকে ব্যবহৃত ফরমগুলো সহজীকরণের জন্য আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের একজন অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সে মোতাবেক আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগে গত ৫ সেপ্টেম্বর একটি কমিটি গঠন করা হয়। এই কমিটি সেবাগ্রহীতাদের সময়, খরচ, যাতায়াত ও ভোগান্তি কমানোর জন্য ব্যাংকিং সেবা গ্রহণে ব্যবহৃত ফরমগুলো সহজ ও গ্রাহক-বান্ধব করার জন্য কাজ করে।
কমিটি বেশ কয়েকটি মিটিং করে ব্যাংকিং সেবায় ব্যবহৃত ৭৫টি ফরম চিহ্নিত করে। তবে ব্যাংক হিসাব খোলার ফরমটিই মৌলিক ফরম হওয়া এবং তা সরাসরি গ্রাহকদের সাথে সংশ্লিষ্ট থাকায় অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এই ফরমটি সহজীকরণ করার জন্য সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।


আরো সংবাদ