১১ ডিসেম্বর ২০১৯

গুজবের বিরুদ্ধে সমাজসচেতনতায় শর্টফিল্ম

-

আধুনিক সমাজে মানুষের যাপিত জীবনমান এক দিকে যেমন উন্নত হচ্ছে, পাশাপাশি জনজীবনে নেমে আসছে হতাশা, বিচ্ছিন্নতা এবং তীব্র ক্ষুধা। আধুনিক মানুষ ভালো থাকার পেছনে ঘুরতে ঘুরতে হয়ে উঠছে বড় বেশি অমানবিক। খাদ্যে ভেজাল, মানুষ ঠকানো, অন্যেরটা কেড়ে নিজের সম্পদের পাহাড় নির্মাণ, গুজবে কান দিয়ে চিলের পেছনে দৌড়ানো তার দৈনন্দিন ক্রিয়া। এই তো কিছুদিন আগে এক মা গলাকাটা গুজবে প্রাণ হারাল। আসলে আমাদের চারপাশে ঘটে যাওয়া অন্যায়ের তদন্ত করা দরকার। মানুষকে শুদ্ধ চেতনার পথে ফিরিয়ে আনা এখন মানবিক দায়িত্ব। এমনই এক মানবিক কাজ চোখে পড়ল ‘আয়না ফিল্ম’ পরিবেশিত ‘ইকবাল হোসেন’ পরিচালিত শর্টফিল্ম ‘ক্ষুধার পরিণতি’। এখানে ক্ষুধার্ত এক মানুষের গল্প পাই, যাকে এই আধুনিক সমাজের ভাষায় বলা যায় দরিদ্র পাগল। যে ক্ষুধার জ্বালায় শিশুর জন্য ফেলে রাখা পাউরুটি খেয়ে ফেলে এবং গলাকাটা সেই সাথে অপহরণকারী ট্যাগে ভূষিত হয়ে গণপিটুনিতে মারা যায়। অথচ ক্ষুধার্ত মানুষটির পেছনের ইতিহাসকে সামনে আনলে আমাদের নিজেদেরকে মানুষ পরিচয় দিতে লজ্জা করবে। একদিন মানুষ খেতে পায় না, আর আমরা গায়ে পাঞ্জাবি আর সুবাস মেখে বলি সুন্দর, ঠোঁটে লিপস্টিক মেখে বলি রূপসী, এই হচ্ছে আমাদের আধুনিক জীবন! এই হচ্ছে আমাদের মানবিকতা! শর্টফিল্মটি দেখার আহ্বান জানাই এবং শেষের দৃশ্যের বাক্যগুলো পালন করে একটি সুন্দর সমাজ নির্মাণে আপনার উজ্জ্বল ভূমিকা কামনা করি।


আরো সংবাদ