১৮ অক্টোবর ২০১৯

মিউজিক ভিডিওতে রুনা লায়লা

-

আশির দশকে বাংলাদেশ টেলিভিশনে রুনা লায়লার গাওয়া বেশ কয়েকটি গান নিয়ে বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রচার হয়েছিল। রুনা লায়লার সেই গানগুলোই পরবর্তীতে এই দেশের নির্মাতাদের মধ্যে মিউজিক ভিডিও নির্মাণের ক্ষেত্রে দারুণ অনুপ্রেরণা যোগায়। অবশ্য মিউজিক ভিডিওর বর্তমান যে ঘরানা, সেই ঘরানায় কখনোই রুনা লায়লাকে মিউজিক ভিডিওতে পাওয়া যায়নি। এবারই প্রথম নিজের গানের আয়োজন করে যথাযথভাবে নির্মিত মিউজিক ভিডিওতে অংশ নিয়েছেন রুনা লায়লা। গতকাল দিনব্যাপী রুনা লায়লা তার নিজের সুর করা ‘ফেরাতে পারিনি আর’ গানের মিউজিক ভিডিওর শুটিংয়ে অংশ নেন। গানটি লিখেছেন কবির বকুল, সুর করেছেন রুনা লায়লা নিজেই। সঙ্গীতায়োজন করেছেন রাজা কাশেফ। গানটির রেকর্ডিং সম্পন্ন হয় গেল ভালোবাসা দিবসে। অবশেষে ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের আয়োজনে এই সময়ের মেধাবী বিজ্ঞাপন ও মিউজিক ভিডিও নির্মাতা শাহরিয়ার পলক রুনা লায়লার এই গানটির ভিডিও নির্মাণ করেছেন। দিন্যবাপী মিউজিক ভিডিওর শুটিংয়ে অংশ নিয়ে রুনা লায়লা তার অনুভূতি প্রকাশ গিয়ে বলেন, ‘ফেরাতে পারিনি গানের সুর আমারই করা। গানটিতেও কণ্ঠ দিয়েছি আমি। নিজের সুর করা গান, নিজের গাওয়া কোনো গানের মিউজিক ভিডিওতে এবারই প্রথম আমার অংশ নেয়া। যে কারণে নিজের ভেতরই ভীষণ ভালোলাগা কাজ করছিল। বেশ আয়োজনের মধ্য দিয়ে, বেশ গুছিয়ে যতœ নিয়ে শাহরিয়ার পলক মিউজিক ভিডিওটি নির্মাণ করেছে। সবাই বেশ আন্তরিকতা নিয়েই কষ্ট করে কাজ করেছে। ধন্যবাদ ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের কর্ণধার ধ্রুব গুহকে। কারণ তারই আন্তরিক চেষ্টায় এই গানটি শ্রোতা দর্শকের সামনে আসতে যাচ্ছে। আমি খুব আশাবাদী গানটি নিয়ে।’ ধ্রুব গুহ জানান, শিগগিরই গানটির সব কাজ শেষ করে ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি দেয়া হবে। ধ্রুব গুহ বলেন,‘শ্রদ্ধেয় রুনা লায়লা এই উপমহাদেশের খ্যাতিসম্পন্ন সঙ্গীতশিল্পী। তিনি আমাদের দেশের গর্ব।


আরো সংবাদ

দেশী-বিদেশী পাইলটরা লেজার লাইট আতঙ্কে ‘গরু ছেড়ে মহিলাদের দিকে নজর দিন’,: মোদির প্রতি কোহিমা সুন্দরীর পরামর্শে তোলপাড় বিশাল বিমানবাহী রণতরী নির্মাণ চীনের, উদ্বেগে যুক্তরাষ্ট্রসহ অনেকে শামীম ওসমানের প্রশ্ন : তোলারাম কলেজে কোথায় টর্চার সেল? জিপি ও রবিতে প্রশাসক নিয়োগ অনুমোদন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জাতীয় পতাকা অবমাননা মামলার শুনানি ৪ নভেম্বর ডিএনসিসির জরিপ কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতারণার দায়ে আটক ১ শিবচরে গণ-উন্নয়ন সমিতির কোটি কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ জবি ছাত্র ইউনিয়নের নেতৃত্বে মুত্তাকী-জাহিন তোলারাম কলেজে কোথায় টর্চার সেল? ‘দ্বীনকে বিজয়ী করতে সর্বক্ষেত্রে যোগ্যতার স্বাক্ষর রাখতে হবে’

সকল