১৯ জানুয়ারি ২০২০

অপুর পারফরম্যান্স, ভিন্ন পথে তার যাত্রা শুরু

-

গেল ৮ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিজয়ীদের হাতে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার তুলে দেয়ার পর সাংস্কৃতিক পর্বে শিল্পীদের পরিবেশনা উপভোগ করেন। সাংস্কৃতিক পর্বের শুরুতেই দু’টি গানে নৃত্য পরিবেশন করেন জনপ্রিয় নায়িকা অপু বিশ^াস। ‘সবাই বলো মা’ ও ‘অশ্রু দিয়ে লেখা এ গান’ দু’টিতে ইভান শাহরিয়ার সোহাগের কোরিওগ্রাফিতে নৃত্য পরিবেশন করেন অপু বিশ^াস। অপুর পারফরম্যান্সে মুগ্ধ হন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রীর সামনে অনুষ্ঠানের শুরুতেই পারফরম্যান্স করে নিজেও বেশ গর্বিত অপু বিশ^াস। ভীষণ উচ্ছ্বাসে সময় কাটছে তার। আর সেই উচ্ছ্বাসের মধ্যেই অপু বিশ^াস তার ভক্ত দর্শকদের নতুন একটি খবর দিলেন। অভিনয়ের পাশাপাশি এবার একটি অন্যরকম ব্যবসায় পরিচালনার সাথে নিজেকে সম্পৃক্ত করেছেন তিনি। তবে এবার নিজে ‘এপিজে ফ্লোর’ নামে নতুন একটি প্রতিষ্ঠান নিয়ে হাজির হলেন তিনি। এপিজের মধ্যে ‘এ’তে অপু এবং ‘জে’তে জয়। আর ‘পি’র অর্থ পরে জানাতে চাইছেন অপু। পি’র মধ্যেই অপু রহস্য রেখে দিয়েই রাজধানীর নিকেতনের ৩ নম্বর রোডের ব্লক বি’র ৫৮ নম্বর হাউজে অপুর নতুন এ প্রতিষ্ঠানের যাত্রা শুরু করলেন। সোমবার (৯ ডিসেম্বর) সন্ধ্যার পর এপিজে ফ্লোরের শুভ উদ্বোধন করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অপুর খুব কাছের শুভাকাক্সক্ষীরা। অপু জানান, এপিজে ফ্লোরে বিউটি পার্লার, ফটো স্টুডিও, মিটিং ও ড্যান্স ফ্লোর থাকছে। তিনি বলেন, ‘এই প্রজন্মের অনেক ছেলেমেয়ে প্রতিনিয়ত নতুন বিভিন্ন ধরনের কাজের সাথে যুক্ত হচ্ছেন। যেমন- ফটোগ্রাফি, বিউটিশিয়ান, কোরিওগ্রাফি। আমরা তাদের সুবিধার্থে কিছুটা সামান্য আর্থিক লাভ রেখে একটা কাজের ক্ষেত্র তৈরি করার চেষ্টা করেছি। আমাদের এখানে সব আয়োজন থাকছে। কেউ চাইলে ন্যূনতম খরচে এগুলো ব্যবহার করতে পারবেন। আমার বিশ^াস নতুনদের জন্যই ফ্লোরটি নিজেকে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে একটি আত্মবিশ^াসী স্থান হিসেবে আখ্যায়িত হবে। হোক না আমার প্রতিষ্ঠান দিয়ে অনেক তরুণ তরুণীর স্বপ্ন পূরণ।’ এদিকে সম্প্রতি অপু বিশ^াস ‘আলোকিত নারী সম্মাননায়’ ভূষিত হয়েছেন। এরই মধ্যে তিনি শেষ করেছেন দেবাশীষ বিশ^াস পরিচালিত ‘শ^শুরবাড়ি জিন্দাবাদ টু’ সিনেমার কাজ। সিনেমায় অপুর আগমন ঘটে ২০০৫ সালে আমজাদ হোসেন পরিচালিত ‘কাল সকালে’ সিনেমাতে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে। বগুড়ার মেয়ে অপুর নায়িকা হিসেবে প্রথম সিনেমা এফ আই মানিক পরিচালিত শাকিব খানের বিপরীতে ‘কোটি টাকার কাবিন’। পরবর্তী সময়ে অসংখ্য সিনেমায় অভিনয় করে তিনি বাংলাদেশের সিনেমাপ্রেমী দর্শকের প্রিয় নায়িকায় পরিণত হন তিনি। প্রয়াত চাষী নজরুল ইসলাম পরিচালিত ‘দেবদাস’ সিনেমায় পার্বতী চরিত্রে অভিনয় করেও প্রশংসিত হয়েছিলেন তিনি। তবে এই সিনেমায় পার্বতী চরিত্রে অভিনয় করে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার না পাওয়ায় মনে কষ্ট রয়ে গেছে তার।


আরো সংবাদ