২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০
তা রা র মু খো মু খি

আগামী প্রজন্মের জন্যও আমি সচেতন

-

চঞ্চল চৌধুরী, দু’বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত বরেণ্য অভিনেতা। অভিনয় জীবনের শুরু থেকেই তিনি দেশ, দেশের মানুষের জন্য নানান ধরনের সামাজিক কর্মকাণ্ডের সাথে নিজেকে সম্পৃক্ত রেখেছেন। শুধু একজন ভালো অভিনেতা হিসেবে নাটক-সিনেমায় অভিনয় করেই নিজের দায়িত্ব শেষ করেননি। একজন গুণী অভিনেতা হিসেবে দেশের মানুষের মধ্যে নানান ধরনের সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে তিনি কাজ করেছেন নিরলসভাবে, বিনা স্বার্থে।
তার সাথে কথা বলেছেন সাকিবুল হাসান
শিশুদের জন্য অনেক দিন থেকেই কাজ করছেন নতুন বছরে তাদের নিয়ে কী পরিকল্পনা?
Ñ অনেক দিন থেকেই আমি শিশুদের জন্য কাজ করার চেষ্টা করছি। সেই ধারাবাহিকতায় আবারো সচেতনতামূলক অনেক কাজে অংশ নিয়েছি। আগামী ২৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ২১ মার্চ পর্যন্ত ৯ থেকে ১০ বছরের কম বয়সী শিশুকে হাম ও রুবেলার টিকা দিতে হবে। এ বিষয়ে জনসচেতনতা বাড়ানোর জন্য ইউনিসেফের ওই কার্যক্রমে সক্রিয় অংশগ্রহণ থাকবে আমার।
বাংলাদেশের সরকারের সহযোগী হয়ে ইউনিসেফ ওই কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছে। এরই মধ্যে এই জনসচেতনতামূলক কাজটির নির্মাণও শেষ হয়েছে। এ সম্পর্কে কিছু বলুন?
Ñ গত শুক্রবার দিনব্যাপী রাজধানীর বনানীর একটি স্কুলসহ আরো বেশ কিছু জায়গায় শুটিং করেছি আমরা। এটি নির্মাণ করেছেন ‘হাসিনা-এ ডটার’স টেইলখ্যাত নির্মাতা পিপলু। আমি আসলে সবসময়ই জনসচেতনতামূলক কাজ করার চেষ্টা করি। কিছু দিন আগেও নদী বাঁচলে বাঁচবে দেশ সচেতনতামূলক একটি কাজ করেছি। এটি নির্মাণ করেছিলেন আমাদের শ্রদ্ধেয় আফজাল হোসেন ভাই।
এবার শিশুদের সচেতনতার জন্য কাজ করছেন। একজন বাবা হিসেবে সন্তানের প্রতি দায়িত্ববোধ থেকেই কি এ ধরনের কার্যক্রমে নিজেকে যুক্ত করেছেন?
Ñহ্যাঁ আমিও একজন সন্তানের বাবা। আমার সন্তানের ভবিষ্যৎ সুস্থতার জন্য যেমন আমি সচেতন, আমাদের আগামী প্রজন্মের জন্যও আমি সচেতন। তাই শিশুদের অভিভাবকদের সচেতন করতেই আমি এই সচেতনতামূলক কাজে অংশগ্রহণ করেছি। আর পিপলুর সাথে এটাই আমার প্রথম কাজ। কাজটি করে আমার খুবই ভালো লেগেছে।’ শিগগিরই তার এই জনসচেতনতামূলক কাজটি দেশের প্রায় সব চ্যানেলেই একযোগে প্রচারে আসবে।
টানা দু’টি সিনেমার শুটিং করলেন, কাজের অগ্রগতি কতদূর?
Ñ টানা দু’টি সিনেমার কাজ শেষে গত এক মাস নজের মতো করে পরিবারকে সময় দিয়েছি। এ ছাড়া আমার এক বোন অসুস্থ, তার জন্যও সময় দিতে হয়েছে।
নিজের ইউটিউব চ্যানেল ‘চঞ্চল চৌধুরী অফিসিয়াল’-এর জন্য কী ধরনের কাজ করছেন?
Ñ কোনো ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে এই চ্যানেল করিনি।
ছোট পর্দায় ব্যস্ততা এখন কেমন?
এরই মধ্যে আমার অভিনীত ইমরাউল রাফাত পরিচালিত ‘বিষয়টি পারিবারিক’ ধারাবাহিকটির প্রচার শেষ হয়েছে। প্রচার চলছে আরো তিনটি ধারাবাহিকের। ধারাবাহিকগুলো হচ্ছেÑ এজাজ মুন্নার ‘শহরালী’, আকরাম খানের ‘কালের যাত্রা’ ও সকাল আহমেদের ‘ভদ্রপাড়া’।

 


আরো সংবাদ