১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০

আজীবন ক্ষমতায় থাকতে যে পদক্ষেপ নিলেন পুতিন

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সংবিধান আমুল পরিবর্তনের প্রস্তাব প্রাথমিকভাবে সমর্থন করেছে পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ স্টেট দুমা। নিম্নকক্ষের ৪৩২ আইনপ্রণেতার সবাই বৃহস্পতিবার পুতিনের প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিয়েছেন। বিপক্ষে কোনো ভোট পড়েনি এবং ভোটদানেও কেউ বিরত থাকেনি। নিম্নকক্ষের নিয়ন্ত্রণে আছে ক্ষমতাসীন পুতিনপন্থী ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টি।

পুতিনের ক্ষমতার মেয়াদ শেষ হবে ২০২৪ সালে। তার অনেক আগেই পুতিন সংবিধান পরিবর্তনের পথ বেছে নিয়েছেন। পশ্চিমা পর্যবেক্ষকদের অনেকেই পুতিনের এ পদক্ষেপকে ‘আজীবন ক্ষমতায় থাকার’ উপায় হিসেবে দেখছেন। যদিও পুতিন গত সপ্তাহান্তে বলেছিলেন, তিনি সোভিয়েত যুগের আজীবন ক্ষমতায় থাকার পদ্ধতি পছন্দ করেন না।

পুতিন গত ১৫ জানুয়ারি সংবিধানে আমুল পরিবর্তনের জন্য দেশজুড়ে গণভোটের প্রস্তাব করেন। দেশব্যাপী ভোটের মধ্য দিয়ে সংবিধান পরিবর্তন করে প্রেসিডেন্টের হাত থেকে ক্ষমতা পার্লামেন্টে স্থানান্তর করতে চান বলে জানিয়েছিলেন তিনি, যাতে পার্লামেন্ট রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রীসহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ পদগুলোতে নিয়োগের ক্ষমতা পায়। রয়টার্স।


আরো সংবাদ