২১ নভেম্বর ২০১৮

ভারতে প্রবেশ করতে পারেননি লর্ড কার্লাইল

-

বেগম খালেদা জিয়ার ব্রিটিশ আইনজীবী লর্ড কার্লাইলকে ভারতে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি। গত রাত সাড়ে ১০টায় এয়ার ইন্ডিয়ার একটি ফাইটে তিনি দিল্লিতে অবতরণ করেন। কিন্তু বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন কর্তৃপ তার ভিসা বাতিল বলে জানিয়ে দেয়। বিএনপির শীর্ষ পর্যায়ের একটি সূত্রে এ খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে। রাত দেড়টায় এ খবর লেখা পর্যন্ত লর্ড কার্লাইল দিল্লি এয়ারপোর্টেই অবস্থান করছিলেন। তাকে ফিরতি ফাইটে লন্ডনে পাঠিয়ে দেয়ার চেষ্টা চলছে।
জানা গেছে, বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন কর্তৃপসহ দেশটির গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন লর্ড কার্লাইলকে বোঝানোর চেষ্টা করেছেন, তার আসার কারণের সাথে কোনোভাবেই ভারত জড়িত নয়। পুরো বিষয়টি বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ।
গত সপ্তাহে লর্ড কার্লাইল ঘোষণা করেছিলেন, বাংলাদেশে বিরোধীদলীয় নেত্রী খালেদা জিয়াকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে কিভাবে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ‘মিথ্যা মামলা’য় ফাঁসানো হয়েছে তা ব্যাখ্যা করতে তিনি দিল্লি আসবেন।
এই সংবাদ সম্মেলনটি তার ঢাকাতেই করার ইচ্ছা থাকলেও বাংলাদেশ তার ভিসার আবেদন অনির্দিষ্টকাল ধরে ঝুলিয়ে রাখায় বাধ্য হয়েই তিনি দিল্লিকে বেছে নিচ্ছেন বলে জানান লর্ড কার্লাইল।
এর আগে গত মার্চ মাসে ঢাকায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ঘোষণা করেছিলেন, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় কারাবন্দী খালেদা জিয়ার অন্যতম আইনজীবী হিসেবে প্রবীণ ব্রিটিশ লর্ড ও বিশিষ্ট আইনজ্ঞ লর্ড কার্লাইলকে নিয়োগ করা হয়েছে।
তারপর থেকে লর্ড কার্লাইল বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে খালেদা জিয়ার মামলা নিয়ে সাাৎকার দিয়েছেন ঠিকই কিন্তু বাংলাদেশের আদালতে খালেদা জিয়ার হয়ে মামলা লড়ার জন্য আসতে চাইলেও তার জন্য ভিসা পাননি।


আরো সংবাদ