২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কী বুঝাতে চাইলেন রামোস, বুঝার আগেই রেফারি দিলেন কার্ড

ফুটবল ভক্তরা রসিকতা করে ডাকে কার্ড বাবা। আসলেই অন্য ফুটবলারদের তুলনায় সার্জিও রামোসের কার্ডের পরিমাণ অনেক বেশি। এবারও তার ব্যতিক্রম ঘটল না। কি বুঝাতে চাইলেন কি বুঝল রেফারি।

গোল করেই গ্যালারির দিকে ছুটলেন সার্জিও রামোস। দুই হাত চশমার মতো করে রাখলেন চোখে। কিন্তু এই উদযাপনের ভঙ্গি ভালো ঠেকল না রেফারি ডেনিজ আয়তেকিনের কাছে। উদযাপনের ভিন্ন অর্থ মনে করে স্প্যানিশ অধিনায়ককে দেখালেন হলুদ কার্ড!

২০২০ ইউরোর বাছাইপর্বে রোমানিয়ার বিপক্ষে বৃহস্পতিবার রাতে স্পটকিকে দলে প্রথম গোলটা করেন রামোস। ২৯ মিনিটে করা তার গোলের একটি বিশেষত্বও আছে। একজন ডিফেন্ডার হয়েও স্পেনের সর্বকালের সেরা ১০ গোলদাতার তালিকায় ঢুকে গেছেন স্প্যানিশ অধিনায়ক। আন্তর্জাতিক ফুটবলে তার গোল সংখ্যা এখন ২১।

বিশেষ গোল, তাই বিশেষভাবে উদযাপন করতে চাইলেন রামোস। কিন্তু রেফারি ভাবলেন স্বাগতিক রোমানিয়ার দর্শকদের খেপানোর উদ্দেশ্যে বুঝি এমন উদযাপন। তাই কিছু না ভেবে রামোসকে দেখালেন হলুদ কার্ড!

পরে রামোসকে ব্যাখ্যা করে বুঝিয়ে দিতে হয়েছে যে দর্শকদের রাগানোর জন্য এমনটা করেননি তিনি। উদযাপনের লক্ষ্য ছিল তার ভাগ্নে, ‘আমি রেফারিকে ব্যাখ্যা করে বুঝিয়ে দিয়েছি যে আমার চশমা উদযাপনটা ছিল আমার ভাগ্নের উদ্দেশ্যে। তাকে বোঝাতে চেয়েছি যে, আমার মতো তোমারও চোখে চশমা পরা উচিত। এটা করেছি তাকে খুশি করার জন্য। গোলটা তাকেই উৎসর্গ করেছি। কিন্তু রেফারি কিছু না বুঝেই আমাকে কার্ড দেখালেন!’

ভুল বুঝে শুধু শুধুই যে রামোসকে কার্ড দেখিয়েছেন সেটা বুঝতে পারছেন রেফারি আয়তেকিনও। সবকিছু শুনে পরে স্প্যানিশ অধিনায়কের কাছে ক্ষমাও চেয়েছেন।

এতে অবশ্য রেফারির উপর থেকে রাগ কমছে না স্প্যানিশ খেলোয়াড়দের। ২-১ গোলে জেতা ম্যাচে ৮০ মিনিটে ডিয়েগো লরেন্তেকে ফাউলের দায়ে লাল কার্ড দেখান আয়তেকিন। পরে রিপ্লেতে দেখা গেছে কোনো দোষ ছিল না স্প্যানিশ খেলোয়াড়ের। সুযোগ বুঝে ১০ জনের স্পেন দলকে শেষদিকে ভীষণ চাপে রেখে অল্পের জন্য ম্যাচটা বের করে নিতে পারেনি রোমানিয়া। স্পেন ম্যাচ বাঁচিয়েছে অল্পের জন্যে।


আরো সংবাদ