২১ অক্টোবর ২০১৯

শরীরে পানির প্রয়োজনীতা

-

শরীরে তিন ভাগের দুই ভাগ ওজনের জন্য পানি প্রয়োজন। মস্তিষ্ক ও পেশির তিন কোয়ার্টারই পানির তৈরি। এমনকি হাড়ের শতকরা ২০ ভাগ পানি। শারীরিক গঠন, বয়স এবং লিঙ্গের উপর ভিত্তি করে ব্যক্তিতে শরীরে পানির পরিমাণ ভিন্ন হয়। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, মহিলাদের তুলনায় পুরুষের শরীরে পানির পরিমাণ বেশি থাকে। কারণ তাদের শরীরে চর্বিবিহীন পেশির পরিমাণ বেশি থাকে। পেশি চর্বির তুলনায় পানিই বেশি ধরে রাখে। প্রতিটি কোষ থেকে শুরু করে সারকুলেশন সিস্টেম শরীরের প্রত্যেকটি অংশের কাজ পানির ওপর নির্ভর করে।
পানি যে জন্য প্রয়োজন
*রক্ত এবং লিস্ফেটিক সিস্টেমের মাধ্যেমে নাইট্রাস এবং অক্সিজেন শরীরের সব অংশে পৌঁছে দেয়।
* শরীরের তাপমাত্রার ভারসাম্য রক্ষা করে।
* শরীরের বিভিন্ন জয়েন্টের স্বাভাবিক নড়াচড়া করতে সাহায্য করে।
* রক্তের স্বাভাবিক চলাচল সাহায্য করে।
* শরীরের অভ্যন্তরীণ ক্ষতিকারক উপাদান বের করে দিতে সাহায্য করে।
পানি বিশুদ্ধ করতে সাজনা
সাজনার ভেষজ গুণাগুণ এবং ব্যবহার আমাদের অনেকের জানা কিন্তু সাজনার একটি বিশেষ ব্যবহার আমরা অনেকেই জানি না। আফ্রিকায় সাজনা জনস্বাস্থ্য রক্ষায় একটি গুরুত্বর্পূণ ভূমিকা পালন করে। সুদানের উত্তরাঞ্চলে পানি বিশুদ্ধকরণে সাজনার বীজ দীর্ঘদিন যাবৎ ব্যবহার হয়ে আসছে। নদী ও ঘোলা জলাশয়ের পানি বিশুদ্ধকরণে সুদানি মহিলারা সাজনা বীজচূর্ণ ব্যবহার করে থাকেন। বৈজ্ঞানিক গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে যে, সাজনা বীজচূর্ণ পানিতে মিশ্রিত ও নিলন্বিত কঠিন পদার্থ ঘনীভূতকারী দ্রব হিসেবে ফলপ্রসূ। এটি ফিটকারির মতো প্রাথমিক ঘনীভূতকারী দ্রবীভূত ও নিলন্বিত কাদা, বালু ও অন্যান্য কঠিন পদার্থের পরিমাণের ভিত্তিতে পানি কখনো বেশি আবার কখনো অপেক্ষাকৃত কম ঘোলা হয়ে থাকে। ঘোলাত্বের পরিমাণের ভিত্তিতে প্রতি লিটার পানিতে ৩০ থেকে ২০০ গ্রাম পর্যন্ত শুষ্ক সাজনা বীজচূর্ণ ব্যবহার করে এক থেকে দুই ঘণ্টার মধ্যে পানি পরিষ্কার করা সম্ভব। ফাও কর্তৃক প্রকাশিত সাময়িকীতে উল্লেখ করা হয়েছে, সাজনা বীজচূর্ণ ব্যবহারে কেবল পানিই পরিষ্কার হয় না, সাথে সাথে ব্যাকটেরিয়া দ্রবীভূত হয়। আমাদের দেশের মতো স্বল্পোন্নত ও উন্নয়নশীল দেশে পানি পরিষ্কারের জন্য এটি একটি সহজলভ্য উপায়। জনস্বাস্থ্য বিভাগের পরীক্ষাসাপেক্ষে আমাদের দেশে এ পদ্ধতি করা যেতে পারে।

 


আরো সংবাদ