১৯ অক্টোবর ২০১৯

ক্যাম্পাস ছাড়া ইবি ছাত্রলীগ সম্পাদক

-

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদককে ধাওয়া দিয়ে ক্যাম্পাস থেকে বের করে দিয়েছে পদবঞ্চিত বিদ্রোহী গ্রুপের নেতাকর্মীরা। শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বহিরাগতদের নিয়ে ক্যাম্পাসে মহড়া দিতে আসলে তাকে ধাওয়া করে বিরোধী গ্রুপ। পরে ক্যাম্পাস থেকে পলায়ন করে সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিব।

গত কয়েকদিন ধরে ইবি ছাত্রলীগের শাখার কমিটি বিলুপ্তির দাবিতে আন্দোলন করে আসছে পদবঞ্চিত বিদ্রোহী গ্রুপের নেতাকর্মীরা। টাকার মাধমে নেতা হওয়ার অডিও ফাঁসের পর তারা সভাপতি পলাশ ও সাধারণ সম্পাদক রাকিবকে ক্যাম্পাসে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে। গত দুদিন ধরে উভয় গ্রুপই সংঘর্ষের প্রস্তুতি নিচ্ছিল। শুক্রবার বিকেল ৫টার দিকে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও বহিরাগত ক্যাডারদের নিয়ে জিয়া মোড়ে অবস্থান নেয় রাকিব। সাড়ে ৫টার দিকে বঙ্গবন্ধু হল থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে পদবঞ্চিতরা। এতে সম্পাদক তার কয়েকজন কর্মী নিয়ে মেইন গেটের দিকে এগুতে থাকে।

এসময় বহিরাগতসহ অন্য কর্মীরা দিগ্বিদিক ছুটে পলায়ন করে। পদবঞ্চিতরা বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে মেইন গেটে রাকিবকে ধাওয়া করে। এসময় তাদের সাথে রাম দা, চাইনিজ কুড়াল, হকিসহ লাঠি-সোঠা তিন শাতাধিক কর্মী অংশ নেয়। ধাওয়া খেয়ে রাকিব মেইন গেটের পাশে পালিয়ে গিয়ে এক বাড়িতে আশ্রয় নেয়। তাকে খুজে না পেয়ে উত্তেজিত কর্মীরা ক্যাম্পাসে ফিরে আসে। পরে তারা লালন শাহ ও শেখ রাসেল হলে সম্পাদক ও তার কর্মীদের খুঁজতে থাকে। এতে পুরো ক্যাম্পাসে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরে তারা বঙ্গবন্ধু হলে ফিরে গিয়ে আবারো কর্মীদের নিয়ে জিয়া মোড়ে অবস্থান নেয়।

এ বিষয়ে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিব বলেন, ‘শনিবার কেন্দ্র ঘোষিত কর্মীসূচি বাস্তবায়ন করতে ক্যাম্পাসে গিয়েছিলাম। পরে আমি ক্যাম্পাস থেকে চলে এসেছি।’

এ বিষয়ে পদবঞ্চিত গ্রুপের নেতা শিশির ইসলাম বাবু বলেন, ‘টাকায় নেতা হওয়া রাকিব বহিরাগতদের নিয়ে সে ক্যাম্পাসে এসেছিল। তাই আমরা তাকে প্রতিহত করেছি। ক্যাম্পাসের ছাত্রলীগ কর্মীরা তাকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছে।’

 


আরো সংবাদ