২৩ অক্টোবর ২০১৯

গণমাধ্যমে কথা বলা বন্ধ রেখেছে আবরারের পরিবার

গণমাধ্যমে কথা বলা বন্ধ রেখেছে আবরারের পরিবার - ছবি : সংগৃহীত

বুয়েটের মেধাবী শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের হত্যাকান্ডের ঘটনায় তার পরিবারের সদস্যদের মাঝে শোকাহত পরিবেশ বিরাজ করছে। শুক্রবার বাদ জুম্মা গ্রামের বাড়ি রায়ডাঙ্গা জামে মসজিদে কুলখানী উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে।

এদিকে ফাহাদের হত্যার বাপারে ফাহাদের পরিবারের পক্ষ থেকে সাংবাদিকদের সাথে খোলা মেলা কথা বলা বন্ধ রেখেছে পরিবারের সদস্যরা। অথচ বুধবার বিকেলেও পরিবারের সদস্যদের প্রতি ফাহাদের হত্যার প্রতিবাদে কঠোর ও সোচ্চার থাকতে দেখা গেছে। সাংবাদিকদের সামনে অকোপটে ফাহাদের হত্যার বিচার দাবী ও ভিসি আসার বিষয়ে কথা শোনা গেছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে একদল সাংবাদিক কুষ্টিয়া থেকে ফাহাদের গ্রামের বাড়িতে গেলে সেখানে তার পরিবারের লোকজন ফাহাদের ব্যাপারে কথা বলতে অনিহা প্রকাশ করে। ফাহাদের বাবা জানান-আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে ফাহাদের হত্যাকারীদের বিচারের দাবী জানিয়েছি। প্রধানমন্ত্রী বিচারের আশ্বাস দিয়েছেন, ইতিমধ্যে অভিযুক্ত আসামিদের অধিকাংশ গ্রেফতার করেছে পুলিশ, আশা করছি ন্যায় বিচার পাবো।

এদিকে বৃহস্পতিবার কুষ্টিয়া জিলা স্কুলের সাবেক শিক্ষার্থীরা জিলা স্কুল প্রাঙ্গনে ফাহাদের হত্যার প্রতিবাদে মানব বন্ধনের কর্মসুচী পালনের প্রস্তুতি নিলেও তা বাতিল হয়ে যায়।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদের কবর জিয়ারত ও তার পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানাতে তার নিজ গ্রাম কুমারখালী উপজেলার কয়া ইউনিয়নের রায়ডাঙ্গা এলাকায় যান বিএনপি'র চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও কুষ্টিয়া জেলা বিএনপি’র সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমি, বিএনপি'র কেন্দ্রীয় কমিটির স্থানীয় সরকার বিষয়ক সম্পাদক ও কুষ্টিয়া জেলা বিএনপি'র সাধারণ সম্পাদক সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ সোহরাব উদ্দিন, কুষ্টিয়া জেলা বিএনপি’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক বাচ্চু, সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট শামীউল হাসান অপু, যুব বিষয়ক সম্পাদক মেজবাউর রহমান পিন্টুসহ কয়া ইউনিয়ন বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠন সমূহের নেতৃবৃন্দ। এ সময় নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে আবরার হত্যার আসামীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন এবং শোকসপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।


আরো সংবাদ