১০ ডিসেম্বর ২০১৯

মেয়েকে উত্ত্যক্তকারীর লাথিতে বাবার মৃত্যু

উত্ত্যক্তকারী হোসেন আলী - ছবি : সংগৃহীত

যশোরে মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বখাটের লাথিতে এক চা বিক্রেতা বাবা নিহত হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত হোসেন আলীকে হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ।

শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে যশোর উপশহরের সারথী মিল এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।

নিহত আব্দুর রাজ্জাক (৫২) উপশহর ৬ নং সেক্টরের সারথী মিলের সামনে জাফরের বাড়ির ভাড়াটিয়া।

নিহতের ছেলে রাজন জানান, তার বোনকে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করত ও কুপ্রস্তাব দিত একই বাড়ির ভাড়াটিয়া প্রতিবেশী হোটেল ব্যবসায়ী হোসেন আলী (৩০)। হোসেন আলী ওই মেয়ের গোসলের কিছু ছবি ও ভিডিও মোবাইল ফোনে রেকর্ড করে। হোসেনের কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় রজনীর ছবি ও ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়ার হুমকি দেয়।

বিষয়টি রজনী তার বাবা-মাকে জানালে কয়েকদিন ধরে রাজ্জাকের সঙ্গে হোসেনের গোলযোগ চলছিল। সকালে ফের ঝগড়া হয়। এ সময় হোসেন বুকে লাথি মারলে রাজ্জাক পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত পায় বলে জানান তিনি।

পরিবারের সদস্যরা ও স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাজ্জাককে মৃত ঘোষণা করেন।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক কাজল মল্লিক জানান, হাসপাতালে আনার আগেই রাজ্জাকের মৃত্যু হয়েছে।

যশোর কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেন, ‘ঘটনাস্থলে গিয়ে জানতে পেরেছি মোবাইল ফোনে ছবি তোলা নিয়ে বিরোধের কারণে আব্দুর রাজ্জাক নিহত হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত হোসেন আলীকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে।’

এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে বলে জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা। ইউএনবি।


আরো সংবাদ