২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

গণতন্ত্র হত্যা করে জাতীয় পার্টিকে গৃহপালিত বিরোধী দল করেছে সরকার : মির্জা ফখরুল

শহীদ জিয়াউর রহমানের মাজারে জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের পুষ্পস্তবক অর্পণ (বায়ে); দলীয় কার্যালয়ে র্যালির আগে বক্তব্য দিচ্ছেন ড. মোশাররফ হোসেন : নয়া দিগন্ত -

এরশাদের জাতীয় পার্টিকে সাথে নিয়ে সরকার গণতন্ত্র হত্যা করে সংসদে তাদেরকে গৃহপালিত বিরোধী দলের সুবিধা দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরল ইসলাম আলমগীর।
সংসদে দেয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যের জবাবে গতকাল সকালে জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের এক অনুষ্ঠানে বিএনপি মহাসচিব এই প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।
মির্জা ফখরুল বলেন, সংসদে প্রধানমন্ত্রী প্রায়ই অসত্য কথা বলেন, যে কথাগুলোর কোনো ভিত্তি নেই, ইতিহাস তা সাক্ষ্য দেয় না। সত্য হচ্ছে এটাইÑ এরশাদ যখন জবরদখল করে ক্ষমতা দখল করে একজন নির্বাচিত রাষ্ট্রপতিকে সরিয়ে দিয়ে, তখন তিনিই (শেখ হাসিনা) বাংলাদেশ-ভারতের সীমান্তের কাছে বলেছিলেন আই অ্যাম নট আনহ্যাপি’, অর্থাৎ উনি অখুশি নন এরশাদ আসাতে।
মির্জা ফখরুল বলেন, পরবর্তীকালে আমরা দেখেছি, এরশাদকে সাথে নিয়েই শেখ হাসিনা এ দেশের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করেছেন এবং মানুষের অধিকারকে কেড়ে নিয়েছেন। কারণ বরাবরই তিনি এরশাদকে সাথে নিয়েই এলায়েন্স করেছেন এবং তাদেরকে সাথে নিয়ে গণতন্ত্রকে হত্যা করে তাদেরকেই (জাতীয় পার্টি) বিরোধী দলে বসিয়েছেন। যেটাকে আমরা বলি, এরশাদ হচ্ছে সম্পূর্ণভাবে আওয়ামী লীগের শেখ হাসিনার গৃহপালিত বিরোধীদলীয় নেতা এবং তার মৃত্যুর পরে এখন সেই দায়িত্ব নিয়েছেন রওশন এরশাদ।
শেরেবাংলা নগরে জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সংগঠনটির সভাপতি আফরোজা আব্বাস ও সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, যুগ্ম সম্পাদক হেলেন জেরিন খানের নেতৃত্বে নেতাকর্মীদের নিয়ে বিএনপি মহাসচিব দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মাজারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।
বিএসএমএমইউতে চিকিৎসাধীন কারাবন্দী খালেদা জিয়ার প্রসঙ্গ টেনে বিএনপি মহাসচিব বলেন, গণতন্ত্রের অন্যতম সেনানী যিনি দীর্ঘ জীবন ধরে গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেছেন, লড়াই করেছেন তাকে আজকে এই গণবিরোধী সরকার যারা জবরদখল করে ক্ষমতায় বসে আছেÑ তারা শুধু রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে তাকে কারাগারে আটক করে রেখেছে।
তিনি বলেন, বেগম জিয়া অত্যন্ত অসুস্থ। তার কোনো চিকিৎসার ব্যবস্থা হচ্ছে না। আমরা আশা করি সম্মিলিত সংগ্রাম-আন্দোলনের মধ্য দিয়ে দেশনেত্রীকে মুক্ত করব এবং গণতন্ত্রকে মুক্ত করব ইনশা আল্লাহ। মহিলা দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আমরা গভীরভাবে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি এবং পরম করুণাময় আল্লাহ তায়ালার কাছে এই দোয়া চাইছিÑ তিনি যেন দ্রুত তাকে মুক্ত করেন এবং আমাদের মধ্যে নেতৃত্ব দিয়ে এ দেশে গণতন্ত্রকে আবার মুক্ত করেন।
মহিলা দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে নেতাকর্মীরা খালেদা জিয়া ও গণতন্ত্রকে মুক্তি করার শপথ নিয়েছে বলে জানান মির্জা ফখরুল।

 


আরো সংবাদ

হামলাকারী দেশকে ‘মূল রণক্ষেত্র’ করা হবে : ইরান দফায় দফায় উচ্ছেদের পরও যৌবন ফিরেনি বুড়িগঙ্গায় এক মাসে ২০ হাজার কোটি টাকা মূলধন হারাল ডিএসই ধরা পড়লে কেউ চেনে না জুয়ার শীর্ষ নিয়ন্ত্রকেরা ধরাছোঁয়ার বাইরে জি কে শামীমের সাথে দু’টি ছবি নিয়ে না’গঞ্জে তোলপাড় কিশোর অপরাধ প্রতিরোধে পরিবার ও সমাজকে এগিয়ে আসতে হবে প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শী নেতৃত্বে দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে : ড. আব্দুর রাজ্জাক এরশাদের স্মরণসভায় জি এম কাদের জাতি দুর্নীতিমুক্ত সমাজ দেখতে চায় সমুদ্র নিরাপত্তা ও ব্লু-ইকোনমি বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত জাতিসঙ্ঘের অধিবেশনে যোগ দিতে টেলিলিংক গ্রুপ চেয়ারম্যানের ঢাকা ত্যাগ

সকল