১১ ডিসেম্বর ২০১৯

নেতিবাচক রাজনীতির কারণে বিএনপির অস্তিত্ব থাকবে না : তথ্যমন্ত্রী

সুর সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ স্মৃতি ফাউন্ডেশনের আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ : নয়া দিগন্ত -

বিদেশ থেকে সব সিদ্ধান্ত গ্রহণ এবং বিএনপির কয়েকজন সিনিয়র নেতার সাম্প্রতিক দলত্যাগের বিষয়টি তুলে ধরে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, নেতিবাচক রাজনীতির কারণেই বিএনপির অস্তিত্ব থাকবে না। বিএনপির নেতৃবৃন্দ, এমনকি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরেরও দলের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নিজের মতপ্রকাশের অধিকার নেই।
গতকাল বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত উস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁর স্মরণসভায় তথ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন। সুরসম্রাট উস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ স্মৃতি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে উস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁর ৪৭তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এ স্মরণসভায় সভাপতিত্ব করেন ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি কামাল হোসেন মাহমুদ।
বিএনপির সব সিদ্ধান্তই বিদেশ থেকে আসে উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, এ জন্য বিএনপির অনেক সিনিয়র নেতা দল ত্যাগ করছেন। বিএনপির এই বাস্তববিবর্জিত রাজনীতি থেকে বেরিয়ে আসা উচিত। তারা সাধারণ মানুষের ওপর যে হামলার রাজনীতি করে আসছে তা থেকেও তাদের ফিরে আসতে হবে।
বিএনপি নেতাদের দল ত্যাগের ব্যাপারে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এক মন্তব্যের সমালোচনা করে হাছান মাহমুদ আরো বলেন, এখন বিএনপির অনেক নেতা আত্মতুষ্টি পেতে পারেন। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে দলটির সিনিয়র নেতৃবৃন্দের দলত্যাগের তালিকা আরো দীর্ঘ হতে যাচ্ছে। অদূর ভবিষ্যতে বিএনপি তাদের প্রকৃত অবস্থা বুঝতে পারবে। বিএনপির অনেক নেতা আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাদের সাথে যোগাযোগ করেছে। কিন্তু এখন আর কাউকেই আওয়ালী লীগে নেয়া সম্ভব নয়।
সঙ্গীত জগতে উস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁর অবদানের কথা স্মরণ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, তিনি তার সৃজনশীলতা ও গানের জন্য সংস্কৃতি অঙ্গনে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবেন।
আ’লীগ নেতাদের বিনয়ী হতে হবে
রাঙ্গুনিয়া (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা জানান, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এখন অনেক দূর এগিয়েছে। কিন্তু উন্নয়নই সব কথা নয়। মানুষের সমর্থন পেতে হলে আওয়ামী লীগের নেতাদের বিনয়ী হতে হবে। সততাকে লালন করতে হবে। গত বুধবার বিকেলে রাঙ্গুনিয়ায় শিলক বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয়ের মাঠে শিলক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো: আবু তাহেরসহ ইউনিয়নের পরলোকগত আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
শিলক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আয়োজনে দক্ষিণ রাঙ্গুনিয়া শিলক বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয় মাঠে শোকসভায় সভাপতিত্ব করেন শিলক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নুর নবী সওদাগর। ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার আহমেদ মাস্টার এর সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা সাদেকুন নূর সিকদার, সাংস্কৃতিক সম্পাদক স্বজন কুমার তালুকদার, ধর্মবিষয়ক সম্পাদক ও পৌর মেয়র মো: শাহজাহান সিকদার, কৃষিবিষয়ক সম্পাদক মুহাম্মদ আলী শাহ, সদস্য ও ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম তালুকদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার শামসুল আলম তালুকদার, পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাস্টার আসলাম খান, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান এম এ মান্নান চৌধুরী, মরহুম আবু তাহেরের বড় ছেলে মোহাম্মদ শাকিল, আওয়ামী লীগ নেতা মাহমুদুল হাসান বাদশা প্রমুখ।


আরো সংবাদ

সকল