১২ ডিসেম্বর ২০১৯
বিএনপির দোয়া মাহফিল

’৭৪-এর দুর্ভিক্ষের পদধ্বনি শোনা যাচ্ছে : মওদুদ

তারেক রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে নয়াপল্টনে বিএনপির দোয়া মাহফিল :নয়া দিগন্ত -

নিত্যপণ্যের অব্যাহত দাম বৃদ্ধির ঘটনায় দেশে ১৯৭৪ সালের মতো অস্থিরতার আলামত দেখা যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে এক দোয়া মাহফিলে তিনি বলেন, পেঁয়াজের সমস্যা নিয়ে আজকে বাংলাদেশের মানুষ ক্ষুব্ধ। যে সরকার একটি সামান্য পণ্যের ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে পারে না সেই সরকারের আর ক্ষমতায় থাকার নৈতিক অধিকার থাকে না। পেঁয়াজের পরে এলো লবণ, এখন চালের দাম পাঁচ টাকা বেড়েছে। চুয়াত্তর সাল এখনো আমার চোখের সামনে ভাসছে। সেই সময় বাংলাদেশে যে অর্থনৈতিক, সামাজিক অবস্থা বিরাজ করছিল, যে অস্থিরতা বিরাজ করছিল, আজকে সেই একই পদধ্বনি আমি শুনতে পাচ্ছি। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫৫তম জন্মদিন উপলক্ষে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচে বিএনপির উদ্যোগে এই দোয়া মাহফিল হয়। এতে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান, ডা: জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, হাবিবুর রহমান হাবিব, আবদুল কুদ্দুস, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, কেন্দ্রীয় নেতা সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, হাবিব উন নবী খান সোহেল, ফজলুল হক মিলন, রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, মীর সরফত আলী সপু, আব্দুস সালাম আজাদ, শামীমুর রহমান শামীম, মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, কাজী আবুল বাশারসহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশ নেন। দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন ওলামা দলের সদস্যসচিব নজরুল ইসলাম।
সরকারের ব্যর্থতার সমালোচনা করে মওদুদ আহমদ বলেন, আমরা এই সরকারকে হুঁশিয়ার করে এ কথা বলতে চাই যে, এখনই সময়, আপনারা পদত্যাগ করুন এবং একটি অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা করুন, যাতে করে এ দেশের মানুষ নির্ভয়ে-নির্বিঘেœ তাদের ভোটের অধিকার প্রয়োগ করতে পারে এবং তাদের পছন্দমতো একটি প্রতিনিধিত্বশীল সরকার প্রতিষ্ঠিত করতে পারে।
বর্তমান বছরকে সরকারের জন্য দুর্ভাগ্যজনক হিসেবে অভিহিত করে তিনি বলেন, সরকার রাষ্ট্র পরিচালনায় সম্পূর্ণভাবে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেছে। কোনো কিছুই তাদের নিয়ন্ত্রণে আছে বলে মনে হয় না। সারা জাতির জন্য একটি দুর্ভাগ্যজনক বছর। একটার পর একটা ঘটনা ঘটেই চলেছে। নুসরাত হত্যা থেকে শুরু ছাত্রলীগের চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজি, সেখান থেকে শুরু করে যুবলীগের ক্যাসিনো, তারপরে পেঁয়াজ ও লবণের সমস্যা। এখন এ ধরনের ঘটনা ঘটতেই থাকবে। বিরোধী দলকে দমন করার জন্য আমাদের নেত্রীকে অন্যায়ভাবে কারাগারে আটকে রেখেছে। তার বন্দিত্বও রাজনৈতিক, মুক্তি না পাওয়াও রাজনৈতিক। খালেদা জিয়া জামিনে মুক্তি না পেলে রাজপথেই তার ফয়সালা করতে হবে বলে জানান মওদুদ।
তারেক রহমানকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে মওদুদ আহমদ বলেন, তারেক রহমান আগামী দিনে রাষ্ট্রনায়কের ভূমিকা পালন করে বাংলাদেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবেনÑ এই আশা-প্রত্যাশা আমাদের রয়েছে। শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের অনেক গুণাবলি তার মধ্যে রয়েছে। শহীদ জিয়ার সাথে আমার ঘনিষ্ঠভাবে মেশার সৌভাগ্য হয়েছিল। তার যেসব গুণ ছিল, তার অনেকগুলোই তারেক রহমানের মধ্যে আমি দেখতে পাই। তার চিন্তাধারায়, তার চলাফেরায়, তার আচার-আচরণে আমি তার প্রতিফলন দেখতে পাই।


আরো সংবাদ