২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ধানের শীষের গণজোয়ার বিএনপির দিবাস্বপ্ন : কাদের

-

ধানের শীষের পক্ষে গণজোয়ার এসেছেÑ বিএনপির এমন দাবিকে দিবাস্বপ্ন হিসেবে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, এর কোনো বাস্তবতা নেই। ফেব্রুয়ারির ১ তারিখে বোঝা যাবে গণজোয়ার কোন দিকে। গণজোয়ার ধানের শীষের পক্ষে না নৌকার পক্ষে, সেদিন প্রমাণ হবে। দিবাস্বপ্ন দেখেতো লাভ নেই।
গতকাল সোমবার সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সমসাময়িক ইস্যুতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় বিএনপি নালিশ নির্ভর দলে পরিণত হয়েছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, যেকোনো ব্যাপারে অভিযোগ ও নালিশ করা বিএনপির মজ্জাগত হয়ে গেছে। সিটি নির্বাচন নিয়ে বিএনপি ছাড়া আর কেউ অভিযোগ করবে না। কারণ বিএনপির রাজনীতিই হচ্ছে অভিযোগ আর নালিশের।
বিএনপিকে বাংলাদেশের সবচেয়ে ব্যর্থ বিরোধীদল হিসেবে উল্লেখ করে কাদের বলেন, তারা রাজপথে আন্দোলন করে বিরোধীদল হিসেবে সফলতা পায়নি। নির্বাচনেও তারা পরাজিত হয়েছে, ব্যর্থ হয়েছে।
ভোট কারচুপির অভিযোগের বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, তারা ভোট কারচুপির কথা ভোট গণনা পর্যন্ত বলতে থাকবে। এটা তাদের পুরনো অভ্যাস। চট্টগ্রাম, সিলেট সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে জিতেই গেছে। তারপরও দেখা গেছে তাদের প্রার্থী রাস্তায় বসে গেছে ভোট কারচুপির প্রতিবাদে।
কারচুপি হলে সরকার পতনের আন্দোলন বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাসের এমন বক্তব্য সম্পর্কে কাদের বলেন, মির্জা আব্বাসের মনে যে কি আছে তা আমরা কেউ জানি না।
মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রথম আলো ইস্যুতে কোনো আলোচনা হয়েছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা আদালতের বিষয়। আমরা এই ইস্যুতে কিছু বলতে চাই না। জামিন দেয়ার এখতিয়ার আদালতের। বিচার বিভাগ স্বাধীন কর্তৃত্বপূর্ণ, তাদের যে ক্ষমতা রয়েছে সেখানে আমাদের সরকার বা দলের কিছু বলার নেই। সরকারের এখানে ইচ্ছা-অনিচ্ছার কোনো ব্যাপার নেই। আমরা কেন এখানে জড়াতে যাবো। সরকারের সঙ্গে তো তাদের দ্বন্দ্বের কোনো কিছু নেই।
আচরণবিধির কারণে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের নির্বাচনী প্রচারণায় যেতে না পেরে মনোকষ্টে আছেন জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আরেকটা পার্টির সেক্রেটারি জেনারেল ক্যাম্পেইন করবে কিন্তু আমি ক্যাম্পেইন করতে পারছি না, ভোট চাওয়ার কোনো ক্যাম্পেইনেও অংশ নিতে পারছি না। আমারতো একটু কষ্ট আছে। আমি নিয়ম মেনে চলছি।
আপনারাইতো সংসদে এ বিষয়ে আরপিও পরিবর্তন করেছেন- এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, সংসদের কথাটা বলতে গেলে নানান কথা আসে, পৃথিবীর কোনো উন্নত গণতান্ত্রিক দেশে স্থানীয় সরকারের নির্বাচনে মন্ত্রী-এমপিরা ক্যাম্পেইন করতে পারে না, এ রকম বিধান নেই। আমাদের এখানে এটা কেন হলো তাতো জানি না।
সিটি করপোরেশনে জাতীয় পার্টির অবস্থানের বিষয়ে জানতে চাইলে কাদের বলেন, আমরাতো কারো সমর্থন চাইনি। তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার আছে তারা দাঁড়িয়েছে। তাদের পোস্টার রাস্তায়তো অনেক বেশি দেখি। খুব সুন্দর পোশাক পরিহিত পোস্টারও দেখি। কথাও হয়তো বলেন কিন্তু আপনারা সাংবাদিকরা হয়তো খুব গুরুত্ব দিচ্ছেন না। না দিলে আমরা কী করব?

 


আরো সংবাদ