২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০

দুই শ্রমিক ও শিশুসহ নিহত ৪

-

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার, চট্টগ্রামের চান্দগাঁও, মাগুরা ও বগুড়ার ধুপচাঁচিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুই শ্রমিক ও শিশুসহ চারজন নিহত হয়েছেন।
চট্টগ্রাম ব্যুরো জানায়, চট্টগ্রাম নগরীর চান্দগাঁও থানার সরাফাত উল্লাহ পেট্রলপাম্পের সামনে বাসচাপায় শিপন কর্মকার নামে এক গার্মেন্ট শ্রমিক নিহত হয়েছেন। গতকাল সোমবার সকাল ৯টায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত শিপন বাঁশখালীর পূর্ব চাম্বল ১০নং ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ডের নেপাল কর্মকারের ছেলে। তিনি ওয়েল গ্রুপের একটি গার্মেন্ট প্রতিষ্ঠানে শ্রমিক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের উপপরিদর্শক আলাউদ্দিন তালুকদার বলেন, পেট্্রলপাম্পের সামনে সিটি-২ বাস ক্রসিং করার সময় শিপনকে চাপা দেয়। মুমূর্ষু অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আনা হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতা জানান, আড়াইহাজারে সড়ক দুর্ঘনায় আবেদীন (৬০) নামে এক ইটভাটার শ্রমিক নিহত হয়েছেন। গত রোববার রাতে উপজেলার গোপালদী পৌর সভার রামচন্দ্রদী বাসস্ট্যান্টে এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আবেদীন ওই এলাকার মজু ভূঁইয়ার ছেলে। স্থানীয় কাউন্সিলর আলী আজগর জানান, রোববার বিকেলে নিহত আবেদীন ঘটনাস্থলে রাস্তা পার হচ্ছিলেন। এই সময় একটি অটো রিকশা তাকে ধাক্কা দিলে তিনি গুরুতর আহত হন। স্বজনরা তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিলে রাতে তিনি মারা যান। আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, জনতা অটো চালককে আটক করেছেন।
দুপচাঁচিয়া (বগুড়া) সংবাদদাতা জানান, দুপচাঁচিয়া-তালোড়া রাস্তার মুক্তাগাছা নামক স্থানে গতকাল সকালে মিনি ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে মোতালেব হোসেন খাবির (১১) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সে তালোড়ার লাফাপাড়া মহল্লার মোজাহার আলীর একমাত্র ছেলে। সে তালোড়া বাজারে একটি মোটরসাইকেল মেরামতের দোকানে কাজ শিখছিল।
জানা যায়, ঘটনার দিন সকালে খাবির সাইকেলে তালোড়া বাজারের মোটরসাইকেল মেরামতের দোকানে যাওয়ার পথে পাথর বোঝাই ফেমা এন্টারপ্রাইজ-১ নামে একটি মিনি ট্রাক সাইকেলটিকে ওভারটেক করার সময় ধাক্কা লেগে পেছনের চাকায় পিষ্ট হলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।
মাগুরা সংবাদদাতা জানান, মাগুরা জেলার ওয়াপদা এলাকায় আলিফা সুলতানা (১২) নামে এক স্কুলছাত্রী নিহত হয়েছে। নিহত আলিফা মাঝাইল গ্রামের মৃত শাহীন হোসেনের মেয়ে।
পুলিশ জানায়, গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় মাগুরা-ফরিদপুর মহাসড়কের ওয়াপদা নামক স্থানে রাস্তা পারাপারের সময় আলিফা সুলতানাকে সোহাগ পরিবহনের দ্রুতগতির একটি যাত্রীবাহী বাস ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই সে নিহত হয়। সে রায়চরণ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী। দুর্ঘটনার পর এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ হয়ে সড়কে গতিরোধক দেয়ার দাবিতে মাগুরা-ফরিদপুর সহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন। এ সময় মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর ঘটনাস্থলে পৌঁছে সড়কে গতিরোধক তৈরি করে দেয়া ও দুর্ঘটনার সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে বিচারের আশ্বাস দিলে এলাকাবাসী অবরোধ তুলে নেন।


আরো সংবাদ