২৩ জানুয়ারি ২০২০

আদালতে আবরার হত্যার কথা স্বীকার করেছে তাবাখখারুল

আদালতে আবরার হত্যার কথা স্বীকার করেছে তাবাখখারুল - ছবি : সংগৃহীত

স্বপ্তম আসামি হিসেবে আদালতে দাড়িয়ে বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার কথা স্বীকার করেছে খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম। রোববার আদালতে দাড়িয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন তিনি।

জবানবন্দি রেকর্ড করার পর তাবাখখারুলকে কারাগারে পাঠান ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত। এ নিয়ে এই মামলায় সাতজন আসামি আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিলেন। অপর ছয় আসামি হলেন অনিক সরকার, ইফতি মোশাররফ, মেহেদী হাসান ওরফে রবিন, মেফতাহুল ইসলাম, মুজাহিদুল ও মনিরুজ্জামান মনীর।

আদালত ও পুলিশ সূত্র বলছে, আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা আদালতের কাছে স্বীকার করেছেন এই আসামিরা। তাদের জবানবন্দিতে উঠে এসেছে কীভাবে আবরার ফাহাদকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।

এদিকে আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার আসামি অমিত সাহা ও সামছুল আরেফিনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। তিন দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের আদালতে হাজির করা হয়। আদালতকে পুলিশ প্রতিবেদন দিয়ে বলছে, বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদকে পূর্বপরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছেন আসামিরা। বুয়েটের শেরেবাংলা হলের যে ২০১১ নম্বর কক্ষে ফেলে নির্যাতন করা হয়, সেই কক্ষ অমিত সাহার।

আবরার ফাহাদ বুয়েটের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের (১৭তম ব্যাচ) ছাত্র ছিলেন। তিনি থাকতেন বুয়েটের শেরেবাংলা হলের নিচতলায় ১০১১ নম্বর কক্ষে। ৬ অক্টোবর রাত আটটার দিকে তাঁকে ডেকে নিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে চকবাজার থানায় মামলা করেন।


আরো সংবাদ

বাসাবাড়ির চুলায় নয়, শিল্পে গ্যাস দেব : সংসদে প্রতিমন্ত্রী মিয়ানমার নিয়ে চীন-রাশিয়ার ভূমিকা লজ্জাজনক : জাতিসংঘ দূত উচ্চশিক্ষার গুণগত মান নিশ্চিত করতে ইউজিসিকে রাষ্ট্রপতির তাগিদ হজের বিমান ভাড়া না বাড়াতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা গাম্বিয়াকে বিএনপির ধন্যবাদ যত বড় আমলা বা রাজনীতিবিদ হোক, দুর্নীতি করলে ছাড় নয় : দুদক চেয়ারম্যান টেকসই উন্নয়ন লক্ষমাত্রা অর্জনে কৃষির ভূমিকা অপরিসীম  রাজস্ব আহরণ কমেছে, বেড়েছে সরকারি ব্যয় শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাস বন্ধে সরকারের সদিচ্ছার অভাব রয়েছে : হারুনুর রশীদ বাবা-ছেলের এক মর্মস্পর্শী কাহিনী পাকিস্তানের নিরাপত্তা ব্যবস্থায় খুশি মাহমুদউল্লাহ

সকল