২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ইসরাইলের বেদুইন শহরে ১২০০ বছরের প্রাচীন মসজিদ আবিষ্কার

-

ইসরাইলের বেদুইন শহর রাহাতের বিরশেবা অঞ্চল থেকে সম্প্রতি আবিষ্কার করা হলো ১২০০ বছরের পুরনো প্রাচীন একটি মসজিদের ভগ্নাবশেষ।প্রাচীন ইসলামের ইতিহাসের বিশেষজ্ঞ গিদিওন অভনি জানিয়েছেন, এই মসজিদটি সম্ভবত আবরদের সঙ্গে যুদ্ধে বিজয়ের সময় গড়ে তোলা হয়েছিল। ৬৩৬ সি.ই এই সময়টাতে নির্মিত হয় এই মসজিদ। তখন ওই সময়ে জেরুসালেমে খিলাফতে রাশিদুন ও বাইজানটাইন সাম্রাজ্যের মধ্যে লড়াই চলছিল। এই সময় থেকে জেরুসালেমে ইসলাম প্রভাব বিস্তারলাভ করে। সেই ঘটনারই প্রমাণ বয়ে নিয়ে চলছে এই মসজিদ। এছাড়া বিশ্বের প্রাচীনতম মসজিদগুলোর মধ্যে এটি অত্যতম।

এলাকায় বসবাসকারী আরব,ইহুদি ও বেদুঈন অধিবাসীদের সহযোগিতায় খনন কাজ করা হয় বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। ইসলামের পবিত্রতম স্থান মক্কার দিকে মিহরাবসহ ছাদ খোলা আয়তাকার আকৃতির মসজিদটি পাওয়া যায়। এই বৈশিষ্ট্যগুলো থাকায় প্রত্নতাত্তিকরা এটিকে প্রাচীনতম মসজিদ বলে মনে করছেন। খনন কার্যের সহপরিচালক জন সেলিগম্যান একথা নিশ্চিত করে বলেন, এই সময়ে জেরুসালেমে এবং মক্কায় আধুনিক বৃহত্তম মসজিদে তৈরির প্রচলন ছিল। কিন্তু এই প্রাচীন মসজিদটি তেমন নয়। সাধারণ স্থানীয় কৃষকদের ইবাদতের জন্য খুবই সাদামাটাভাবে এটিকে গোড়ে তোলা হয়ে ছিল।
প্রত্নতাত্বিকরা বলছেন, এমন একটি মসজিদের আবিষ্কার সে সময়ের সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় পরিবর্তনের প্রক্রিয়াগুলিকে নির্দেশ করে। রোমান-খ্রিস্টান বাইজেন্টাইন যুগ থেকে প্রাথমিকভাবে ইসলামিক যুগের রূপান্তরকে তুলে ধরতে সাহায্য করছে।

ভগ্নাবশেষটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা গেছে, যে ওই মসজিদ চত্বরে দুটি আলাদা থাকার জায়গা রয়েছে, সামনে উঠন ছিল।এছাড়া একটি ভাড়ারঘর সহ রান্নার জন্য মাটির উনুনও মিলেছে।

ইসালামিক ইতিহাসের গবেষকরা বলছেন, এই আবিষ্কার অঞ্চলটির ইসলাম ইতিহাস জানতে তাদের সাহায্য করবে। তাদের দাবি, বাইজানটাই সাম্রাজ্যের পতনের পর যখন সেখানে আরবরা সামাজ্য বিস্তার করে ছিল, সেই সময় তৎকালীন সরকার জমিগুলিকে শীর্ষ কর্মকর্তাদের ভাগাভাগি করে দিয়ে ছিলেন। সেই সময় সিরিয়া পর্যন্ত আরবরা বিস্তার লাভ করে। এই ঘটনাবলীর সাক্ষ্য বহন করে চলেছে এই মসজিদ।

ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, নেগেভে প্রত্নতত্ত্ব কর্তৃপক্ষ বেদুঈনদের প্রতিষ্ঠা ও উন্নয়ন করতে সব ধরনের সম্ভবনা যাছাইয়ের কাজ করছে। এই অঞ্চলের আশেপাশে খোঁজ পাওয়া এই প্রাচীন বিরল ভবনকে নির্মান করার ব্যাপারে চেষ্টা চালাচ্ছে ইসরাইলের প্রাচীন ও প্রত্নতাত্বিকরা।
সূত্র : টিডিএন


আরো সংবাদ