১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আরো একটি বিদেশী জাহাজ আটক করল ইরান

তেল পাচারের অভিযোগে আরো একটি বিদেশী জাহাজ আটক করেছে ইরানের কোস্টগার্ড। শনিবার ফিলিপাইনের ১২ জন নাবিকসহ জাহাজটি আটক করা হয়েছে। রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, ইরান থেকে দুই লাখ ৮৪ হাজার লিটার ডিজেল পাচারের সময় উপসাগরীয় অঞ্চল থেকে ওই জাহাজটি আটক করা হয়। আটক ব্যক্তিরা সবাই ফিলিপাইনের নাগরিক। এ সব জ্বালানি পাচার হয়ে উপসাগরীয় কোনো দেশে যাচ্ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের অবরোধের মধ্যেই তেহরান তার শক্তি বৃদ্ধির জন্য পেট্রল রফতানি করছে। বিপুল পরিমাণ রাষ্ট্রীয় ভর্তুকি ও দেশীয় মুদ্রার দরপতনের ফলে ইরান থেকে খুবই সস্তায় জ্বালানি সংগ্রহ করে বিভিন্ন দেশ। দেশটি থেকে প্রতিদিন আনুমানিক এক কোটি লিটার জ্বালানি চোরাচালান করা হয় ইরানি সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে।

ইরানের সাথে যুক্তরাষ্ট্রের উত্তেজনা চলার মধ্যে জুলাইতে উপসাগরীয় এলাকা থেকে ব্রিটিশ পতাকাবাহী ট্যাংকার স্টেনা ইম্পারো আটক করে ইরান। ওই সময়ে আন্তর্জাতিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ এই জাহাজ পরিবহন রুটে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। প্রাথমিকভাবে তেহরানের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, ইরানের একটি মাছ ধরার নৌকার সাথে ধাক্কা লাগার পর ব্রিটিশ ট্যাংকারটি আটক করা হয়। পরে ব্রিটিশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানান, আটকের সময় তাদের জাহাজটি ওমানের সমুদ্রসীমায় ছিল।


আরো সংবাদ

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ ১২ বছর আগে শেষ ম্যাচ খেলেছেন, অবসরের ঘোষণা দিলেন আজ গণদলের মহাসচিবের পিতার ইন্তেকালে শোক অনলাইনে ভুল তথ্য শিশুদের জন্য বড় হুমকিগুলোর অন্যতম : ইউনিসেফ জাপানের কাছে বিধ্বস্ত বাংলাদেশ জামালপুরে আ’লীগ-যুবলীগের ৩ জনকে ভ্রাম্যমান আদালতে সাজা ২০-২১ ডিসেম্বর আ’লীগের জাতীয় সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা হুয়াওয়ে নিয়ে এলো বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত গতিসম্পন্ন এআই ট্রেনিং ক্লাস্টার এটলাস ৯০০ সৌদি আরবের হাজার কোটি ডলারের প্রতিরক্ষাব্যবস্থা কি ব্যর্থ হচ্ছে মালালার বিরুদ্ধে হঠাৎ কেন আক্রমণ ভারতীয়দের? অভিযোগপত্র গ্রহণ, ৯ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা

সকল