২৪ অক্টোবর ২০১৯

ইরাকজুড়ে রক্তক্ষয়ী বিক্ষোভ, ৩১ জনের প্রাণহানি

চলমান আন্দোলন দেশটির প্রধানমন্ত্রী আদেল আবদেল মাহদির জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। - ছবি : এএফপি

ইরাকের রাজধানী ও দক্ষিণাঞ্চল জুড়ে বৃহস্পতিবার দাঙ্গা পুলিশের সাথে হাজার হাজার বিক্ষোভকারীর ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। দেশটিতে তৃতীয় দিনে গড়ানো এ গণআন্দোলনে এ পর্যন্ত ৩১ জন নিহত হয়েছে। খবর এএফপি’র।

দেশে ব্যাপক দুর্নীতি, বেকারত্ব ও নিম্নমানের সরকারি সেবার প্রতিবাদ জানাতে হাজার হাজার লোক রাস্তায় নেমে আসে। কারফিউ উপেক্ষা করে বিক্ষোভ করা লোকজনকে ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ টিয়্যার গ্যাস ও গুলি ছুড়লে উভয় পক্ষের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে।

এ আন্দোলন মোকাবেলা করা এখন প্রধানমন্ত্রী আদেল আবদেল মাহদির জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। কেননা, এরআগে কখনো তাকে এ ধরনের চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হয়নি।

বিক্ষোভ শুরুর পর জনগণের উদ্দেশে দেয়া প্রধানমন্ত্রীর প্রথম ভাষণ শুক্রবার টেলিভিশনে প্রচার করার সময় বাগদাদে ব্যাপক গোলাগুলির শব্দ শোনা যায়।

তিনি সাম্প্রতিক ঘটনাবলীকে ‘রাষ্ট্রের জন্য ধ্বংসাত্মক’ হিসেবে উল্লেখ করলেও বিক্ষোভকারীদের দাবির ব্যাপারে সরাসরি জবাব দেয়া থেকে বিরত থাকেন।

পক্ষান্তরে আবদেল মাহদি তার সরকারের বিভিন্ন অর্জনের কথা তুলে ধরেন এবং অভাবগ্রস্ত পরিবারের জন্য মাসিক ভাতা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।


আরো সংবাদ