২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০

থাপ্পড় মারার আজব প্রতিযোগিতা

থাপ্পড় মারার আজব প্রতিযোগিতা - ছবি : সংগৃহীত

এই পৃথিবীর রঙ্গমঞ্চে কত রকমের প্রতিযোগিতাই না হয়। বউকে কাঁধে নিয়ে দৌড়, ষাঁড়ের সঙ্গে লড়াই, মোরগ লড়াই, কাদা মাখা থেকে শুরু করে, আলু দৌড়, অঙ্ক দৌড় ইত্যাদি।

এবার আরো এক আজব প্রতিযোগিতার কথা শোনা গেল। রাশিয়ায় প্রচলিত এই অপ্রচলিত প্রতিযোগিতার নাম চড় মারা। এতটা কষ্টকর প্রতিযোগিতার কথা ভাবলেই ভয় লাগে। অথচ রাশিয়ায় এমন মারকুটে প্রতিযোগিতা বহাল তবিয়তে চালু রয়েছে। যার ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ায় বিশ্বজুড়ে রাষ্ট্র হয়ে যায় আজব বিষয়টি।

মেল স্ল্যাপিং চ্যাম্পিয়নশিপ বা ইডিয়টদের পাগলামি
এ বছর এই প্রতিযোগিতায় হেরে গিয়ে মুকুট খোয়ালেন গতবছরের চ্যাম্পিয়ন ভাসিলি কামোটস্কি। এবার তাকে হারিয়ে মুকুট ছিনিয়ে নিলেন ম্যাক পেলম্যান। প্রথম পুরস্কার ৩০ হাজার রাশিয়ান রুবল (বাংলাদেশী মুদ্রায় ৪০ হাজার ৬৮৮ টাকা)।

পেশায় কৃষক সাইবেরিয়া অঞ্চলের বাসিন্দা ভাসিলি শুধু পরাজিতই হননি, প্রতিপক্ষের সপাট চড় খেয়ে সংজ্ঞা হারান। দীর্ঘক্ষণ জ্ঞান না ফেরায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়। কয়েকঘণ্টা চিকিৎসার পর অবশ্য দৈত্যাকার ভাসিলিকে ছেড়ে দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এখন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গিয়েছেন। প্রতিপক্ষের চড় খেয়ে উলটে পড়ে যাওয়ার দৃশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

রাশিয়ার ক্রাসনোইয়ারস্ক শহরে আয়োজিত এই বিদ্ঘুটে প্রতিযোগিতার নাম ‘মেল স্ল্যাপিং চ্যাম্পিয়নশিপ’। একটা টেবিলের দু’দিকে মুখোমুখি খালি গায়ে দাঁড়ান দুই প্রতিযোগী। লটারির মাধ্যমে ঠিক হয় প্রথমে কে চড় কষাবে। নির্ধারিত সময়ে রেফারি ঘণ্টা বাজালেই সজোরে প্রতিপক্ষের গালে আছড়ে পড়ে কয়েক কেজি ওজনের সেই হাত। যার আঘাত সামলে নিয়ে কিছুক্ষণ পর পালটা থাপ্পড় হয় অন্যজনকে। এটাই এই প্রতিযোগিতার রীতি। যা দেখতে এবার হাজার খানেক দর্শক হাজির ছিলেন।

তবে সোশ্যাল মিডিয়ার ভিউয়াররা এই যন্ত্রণাদায়ক প্রতিযোগিতাকে ‘ইডিয়টদের পাগলামি’ বলে অভিহিত করেছেন।
পূবের কলম


আরো সংবাদ