২৫ এপ্রিল ২০১৯

রাষ্ট্রীয় সম্পদ লুটপাট চলছে : হাসান সরকার

-

বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ও গাজীপুর মহানগর বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি মুক্তিযোদ্ধা হাসান উদ্দিন সরকার বলেন, ভুয়া ভোটের সরকারের লাগামহীন দুর্নীতি-লুটপাটে চুপ থাকতে গায়েবি ও আজগুবি মামলায় বিএনপি নেতাকর্মীদের চাপে রাখা হচ্ছে। কিন্তু জেল-জুলুম ও হামলা-মামলা দিয়ে বিএনপি নেতাদের মুখ বন্ধ রাখা যাবে না। অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ চলবেই।
গত বছরের ফেব্রুয়ারি মাসের একটি মামলায় গতকাল মঙ্গলবার দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে গাজীপুর আদালতে হাজিরা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। মামলায় বিএনপি ও জামায়াতের ১৫৬ জন আসামি মঙ্গলবার গাজীপুর আদালতে হাজিরা দেন।
হাসান সরকার বলেন, অগণতান্ত্রিক এই সরকার একে একে সব সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করে দিচ্ছে। রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠানগুলোতে বেপরোয়া লুটপাট চালাচ্ছে। ব্যাংক-বীমা, শেয়ার বাজার লুটে নেয়ার পর এবার রাষ্ট্রায়ত্ত কলকারখানায় হাত দিয়েছে। টেন্ডারের নামে টঙ্গীতে রাষ্ট্রায়ত্ত কাদেরিয়া টেক্সটাইল মিলের মেশিনপত্রসহ যাবতীয় অস্থাবর সম্পত্তি লুটপাটের আয়োজন করা হয়েছে। অতি গোপনে কথিত দীর্ঘ মেয়াদি ভাড়া প্রদানের নামে মিলটির সব স্থাবর সম্পত্তি নিজেদের দলীয় লোকদের কাছে হস্তান্তর করা হচ্ছে। ইতোমধ্যেই রাষ্ট্রায়ত্ত বিটিএমসি ও বিজেএমেিসর সব কলকারখানায় দলীয় দখলদারিত্ব কায়েম করা হয়েছে। এভাবে রাষ্ট্রীয় সম্পদ লুটপাট মেনে নেয়া যায় না।


আরো সংবাদ




rize escort bayan didim escort bayan kemer escort bayan alanya escort bayan manavgat escort bayan fethiye escort bayan izmit escort bayan bodrum escort bayan ordu escort bayan cankiri escort bayan osmaniye escort bayan