১৩ নভেম্বর ২০১৯

আপন জুয়েলার্সের মালিকের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবেদন পুত্রবধূর নারাজি আবেদন

-

আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ সেলিমের বিরুদ্ধে পুত্রবধূর দায়ের করা গর্ভপাতের চেষ্টা, নির্যাতন ও হত্যার হুমকির মামলায় অভিযোগের সত্যতা পায়নি মর্মে পিবিআই প্রতিবেদন দিয়েছেন। সেই প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে মামলার বাদি দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাতের স্ত্রী ফারিয়া মাহাবুব পিয়াসা নারাজি আবেদন দিয়েছেন।
রোববার ঢাকা মহানগর হাকিম তোফাজ্জল হোসেনের আদালতে ফারিয়া মাহাবুব পিয়াসা এ নারাজির আবেদন জমা দেন। বাদিপক্ষের আইনজীবী নারাজির পিটিশনটি শুনানির জন্য একটি তারিখ ধার্যের আবেদন করেন। আদালত আবেদন মঞ্জুর করে নারাজির বিষয়ে শুনানির জন্য ১ সেপ্টেম্বর তারিখ ধার্য করেন।
উপস্থিত ফারিয়া মাহাবুব পিয়াসা সাংবদিকদের বলেন, ‘মামলাটি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) তদন্ত করে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ পায়নি মর্মে প্রতিবেদন দাখিল করেছেন। আমি পিবিআইকে প্রয়োজনীয় সাক্ষ্য-প্রমাণ দিয়েছি। তারপরও তারা এ ধরনের প্রতিবেদন দিয়েছে। আমার কাছে তদন্ত কর্মকর্তা অবৈধ উৎকোচ দাবি করেছিল। উৎকোচ না পাওয়ায় অসত্য প্রতিবেদন দিয়েছে। সে কারণে নারাজির আবেদন করেছি। তিনি আরো বলেন, এমনি এমনি কেউ মামলা করতে আসে না। আমি চাই মামলাটির সুষ্ঠু তদন্ত ও সঠিক বিচার। বিচার না হওয়া পর্যন্ত আমি লড়ে যাবো।
গত ১৭ জুলাই মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) পরিদর্শক মো: মজিবুর রহমান। দিলদার আহমেদ সেলিম এবং আপন রিয়েল এস্টেটের পরামর্শক ও তত্ত্বাবধায়ক মো: মোখলেসুর রহমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হয়নি মর্মে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। গত ১১ মার্চ ফারিয়া মাহাবুব পিয়াসা আদালতে দুইজনের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন। ২০১৭ সালের ২৮ মার্চ বনানীর রেইন-ট্রি হোটেলে দুই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের মামলার প্রধান আসামি সাফাত আহমেদ। বর্তমানে তিনি কারাগারে আছেন।


আরো সংবাদ