১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯

  চমেকে বিএমএ’র কর্মসূচি অতঃপর বায়োমেট্রিক হাজিরার সংযোগ বিচ্ছিন্ন!

-

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ডিজিটাল পদ্ধতিতে (বায়োমেট্্িরক) হাজিরার বৈদ্যুতিক সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে। বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) চট্টগ্রাম শাখার পক্ষ থেকে বায়োমেট্রিক পদ্ধতির এই হাজিরার বিরুদ্ধে কর্মসূচি ঘোষণার পর এই সংযোগ বিচ্ছিন্নের ঘটনা ঘটেছে। তবে এর সাথে কারা জড়িত তা নিশ্চিতভাবে বলতে পারেনি কলেজ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।
মঙ্গলবার ১০ সেপ্টেম্বর রাতে চমেক হাসপাতালে স্থাপিত বায়োমেট্রিক সংযোগ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় পাওয়া গেছে। এর আগে চমেকের পক্ষ থেকে চিকিৎসকদের ১১ সেপ্টেম্বর থেকে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে শতভাগ হাজিরা নিশ্চিতের নির্দেশনা দেয়া হয়। এরপরই বিএমএ’র চিঠি দেয়ার পাশাপাশি সংযোগ বিচ্ছিন্নের এই ঘটনা ঘটেছে।

চমেক অধ্যক্ষ ডা: সেলিম মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর নয়া দিগন্তকে বলেন, মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে সব চিকিৎসকের বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে হাজিরা দেয়ার মাধ্যমে শতভাগ উপস্থিতির নির্দেশ দেয়া হয়েছে। কে বা কারা বায়োমেট্রিক সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে। কিন্তু আমরা চিকিৎসকদের মন্ত্রণালয়ের নির্দেশের কথা অবহিত করেছি।
সূত্র মতে, বিএমএ চট্টগ্রাম শাখার পক্ষ থেকে সোমবার চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক, চমেকের অধ্যক্ষ এবং সিভিল সার্জনকে চিঠি দিয়ে জানানো হয়, বুধবার কোনো চিকিৎসক বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে হাজিরা দেবেন না। আগের মতোই চিকিৎসকরা সনাতন পদ্ধতিতে হাজিরা দিয়ে কর্মস্থলে উপস্থিত থাকবেন। এরপর সংযোগ বিচ্ছিন্নের ঘটনা ঘটে।

 


আরো সংবাদ