২১ নভেম্বর ২০১৯

আশা করি খেলাঘরের আন্দোলন সফলভাবে এগিয়ে যাবে : ড. আনিসুজ্জামান

কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসরের সম্মেলনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করছেন অধ্যাপক আনিসুজ্জামান : নয়া দিগন্ত -

‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় নতুন প্রজন্ম গড়ে তুলি’ অঙ্গীকার নিয়ে শিশু-কিশোরদের বৃহৎ সংগঠন কেন্দ্রীয় খেলাঘরের দুই দিনব্যাপী জাতীয় সম্মেলন গতকাল শুরু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকালে শিশু একাডেমিতে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে এ সম্মেলন উদ্বোধন করেছেন জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান। সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন খেলাঘর কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতিমণ্ডলীর সভাপতি অধ্যাপিকা পান্না কায়সার।
জাতীয় সম্মেলন উদ্বোধন করে অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান বলেন, আমি আশা করি, খেলাঘরের আন্দোলন তার গৌরব অক্ষুণœ রেখে সফলভাবে সামনের দিকে এগিয়ে যাবে। একই সাথে প্রত্যাশা করছি, খেলাঘরের এ সম্মেলন সার্থক হোক।
সম্মেলন বাল্যবিবাহ বন্ধ করা ১১ বছরের সাহসী শিশুকন্যা মণিকাকে খেলাঘরের বিশেষ সম্মাননা দিয়ে অধ্যাপিকা পান্না কায়সার বলেন, যে কাজে পরিবার ব্যর্থ, ব্যর্থ সমাজ, যে কাজ করেছ, তোমার বান্ধবীকে নিয়ে। তোমার অকাল পরিণতি বাল্যবিবাহ করেছ বন্ধ। তোমাকেই অনুসরণ করে চলবে নতুন প্রজন্ম। দেখিয়েছ তুমি স্বপ্ন। জাগিয়েছ সাহস। দিয়েছ প্রেরণা।
শিশু মণিকা বলে, বরগুনার আমতলীতে আমার বাড়ি। আমি দ্বিতীয় শ্রেণীতে পড়ি। মা-বাবা গরিব, তাই আমার বিয়ে ঠিক করে। আমি বারণ করলেও তারা শোনে না। বাধ্য হয়ে আমি আমার বান্ধবীকে নিয়ে থানায় যাই এবং অভিযোগ করি। এরপর মহিলা পুলিশ আমার বিয়ে বন্ধ করে। খেলাঘরের জাতীয় সম্মেলনে সম্মাননা পেয়ে আমি ধন্য জানিয়ে মণিকা বলে, আমি খেলাঘরের সদস্য হতে চাই। আমি ভালো মানুষ হতে চাই। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো: আখতারুজ্জামান, বাংলাদেশ শিশু একাডেমির পরিচালক আনজীর লিটন, খেলাঘর কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক সভাপতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিরঞ্জন অধিকারী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রণয় সাহা, আব্দুল মতিন ভূঁইয়া, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শাহাবুল ইসলাম বাবু প্রমুখ।


আরো সংবাদ

সকল