১৭ নভেম্বর ২০১৯
তাজরীন দুর্ঘটনার ৭ বছর

ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যে এগিয়ে আসেনি কোনো প্রতিষ্ঠান

-

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে গতকাল সকালে জাগো বাংলাদেশ গার্মেন্ট শ্রমিক ফেডারেশনের উদ্যোগে তাজরীন ফ্যাশন লিমিটেডের আহত শ্রমিকদের পুনর্বাসন ও ক্ষতিপূরণ দেয়া এবং ১১৩ জন শ্রমিক হত্যাকারী অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন জাগো বাংলাদেশ গার্মেন্ট শ্রমিক ফেডারেশনের আহ্বায়ক মো: বাহারানে সুলতান বাহার। বক্তব্য রাখেন জাগো বাংলাদেশের সভাপতি সাংবাদিক ফরিদ খান, সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতা মোহাম্মদ মোস্তফা, মো: শামীম, জরিনা, আঞ্জু, রেহেনা, মো: আনিছ, জাগো বাংলাদেশ শিশু-কিশোর ফেডারেশনের সভাপতি জামাল শিকদার, সাংবাদিক মিলন মল্লিক প্রমুখ।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ২০১২ সালের ২৪ নভেম্বর এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে তাজরীন ফ্যাশনের ১১৩ জন শ্রমিক নিহত হন। এ সময় বহু শ্রমিক আহত হন। তখন প্রধানমন্ত্রীসহ বিজিএমইএ, শ্রম মন্ত্রণালয়, ব্যাংক, বীমা, এনজিও এবং বিভিন্ন সংস্থা ও প্রতিষ্ঠান সাহায্য-সহযোগিতার আশ্বাস দেয়। কিন্তু অদ্যাবধি কোনো প্রকার সাহায্য-সহযোগিতা ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমিকরা পায়নি।
মানববন্ধনে তাজরীন ফ্যাশন লিমিটেডের শ্রমিকরা অভিযোগ করে আশ্বাসের পরিপ্রেক্ষিতে আমরা বহুবার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ধরনা দিয়েছি। কেউ আমাদের কোনো ধরনের সাহায্য-সহযোগিতা করেনি। মুখরোচক শিরোনামের জন্য মিডিয়ায় ঘোষণা দিলেও বাস্তবে তারা ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকে। ইতোমধ্যে বহু শ্রমিক পঙ্গত্ব বরণ করে মানবেতর জীবনযাপন করতে বাধ্য হচ্ছে। তাদের সার্বিক সহযোগিতা করা খুবই প্রয়োজন। জীবনের তাগিদে বাধ্য হয়ে প্রেস ক্লাবের সামনে এসে সবার সহযোগিতা কামনা করছি।
মানববন্ধনে সংগঠনের পক্ষ থেকে আগামী ১ নভেম্বর বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে একই দাবিতে মানববন্ধনের ঘোষণা দেয়া হয়। বিজ্ঞপ্তি।


আরো সংবাদ