১১ ডিসেম্বর ২০১৯

প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের মিলনমেলায় উচ্ছ্বাসে মুখরিত চবি প্রাঙ্গণ

চবির প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের মিলনমেলায় উপস্থিতির একাংশ : নয়া দিগন্ত -

বয়সের ভেদাভেদভুুলে তারুণ্যের উচ্ছ্বাসে দেশের নানা প্রান্ত থেকে বন্দর নগরীতে জড়ো হয়েছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজার হাজার প্রাক্তন শিক্ষার্থী। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীদের প্রথম সম্মিলিত পুনর্মিলনী উৎসব তাই হয়ে উঠেছিল অনন্য এক মিলনমেলা। ‘প্রাণের উৎসবে মাতি উল্লাসে’ স্লোগানে অনুষ্ঠিত দুই দিনব্যাপী মহা মিলনমেলার মূল অনুষ্ঠান ছিল গতকাল শুক্রবার। সকালে বিশ্বদ্যিালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. শিরীন আক্তার আনুষ্ঠানিকভাবে উৎসবের উদ্বোধন করেন।
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৯টি ব্যাচে শিক্ষা জীবন শেষ করে বেরিয়েছেন লাখো শিক্ষার্থী। যাদের অনেকে এখন প্রতিষ্ঠিত দেশ-বিদেশের নানা ক্ষেত্রে। প্রথম সম্মিলিত পুনর্মিলনীতে তাই অনেকেই ছুটে আসেন প্রাণের আবেগে। এই পুনর্মিলনী উৎসব ছিল প্রাণের আবেগে বহুবর্ণিল। বিভিন্ন বিভাগ আর ব্যাচের সাবেক শিক্ষার্থীরা নিজেদের মতো করে তৈরী টিশার্ট, ক্যাপ পরে পুনর্মিলনীতে যোগ দেন। সকাল থেকে আড্ডা, খুনসুটি, গানসহ নানা আয়োজনে উৎসব প্রাঙ্গণটিই হয়ে ওঠে একখণ্ড বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর। বয়সের ভেদাভেদ ভুলে খুনসুটি, আড্ডায় সবাই যেন ফিরে যান তাদের তারুণ্যের দিনে।
এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহ্যের প্রতীক হয়ে ওঠা শাটল ট্রেনের প্রতিকৃতিও রাখা হয়েছিল মিলনমেলার স্থানে। সেই প্রতিকৃতি সামনে দাঁড়িয়ে কেউ কেউ তোলেন সেলফি।
উৎসবে যোগ দিতে আসেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী মন্ত্রী, সচিবসহ অনেক বিশিষ্টজন। প্রিয় বিদ্যাপীঠ নিয়ে তারাও খুলে দেন স্মৃতির ঝাপি। সবারই চাওয়া, প্রিয় প্রতিষ্ঠানটি যেন জায়গা করে নেয় দেশ সেরার পাশাপাশি বিশ্বের সেরা শিক্ষাঙ্গণের কাতারে।
গত বৃহস্পতিবার বিকেলে নগরীর চারুকলা ইনস্টিটিউট থেকে শোভাযাত্রা দিয়ে শুরু হয় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তনদের এই মিলনমেলা। গতকাল শুক্রবার সকাল থেকে নগরীর জিইসি কনভেনশন সেন্টারে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে অনুষ্ঠানস্থলে দেয়া হয় সাবেক ভিসিদের সম্মাননা। দিনভর চলে স্মৃতিচারণ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, ভোজ ও র্যাফল ড্র।
প্রসঙ্গত এ বছরের ২৩ ফেব্র“য়ারি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক মুখ্য সচিব আব্দুল করিমকে সভাপতি ও চট্টগ্রাম চেম্বারের সভাপতি মাহবুবুল আলমকে সাধারণ সম্পাদক করে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন আত্মপ্রকাশ করে।
অনুষ্ঠানে যোগদানকারীরা জানান, এলামনাইয়ের প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠান হচ্ছে। অনেক দিন পর পুরনো বন্ধু আর পরিচিতজনদের সাথে দেখা হলো। অনেকেই নিজেদের ভালো লাগার অনুভূতির কথা জানান। অনেকেই পুরনো বন্ধুদের কাছে পেয়ে আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন।


আরো সংবাদ