১৬ ডিসেম্বর ২০১৯

রাবি ভিসির পদে বহাল থাকার বৈধতা নিয়ে হাইকোর্টের রুল

-

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ভিসি অধ্যাপক ড. এম আব্দুস সোবহান কোন কর্তৃত্ববলে পদে বহাল আছেন, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে রাবির ভিসি, রাষ্ট্রপতির সচিব, শিক্ষা মন্ত্রণালয় সচিব, রাবির রেজিস্ট্রারসহ সংশ্লিষ্টদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।
এক রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি মো: ইকবাল কবিরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ গতকাল সোমবার এ রুল জারি করেন। আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানিতে অংশ নেন সিনিয়র আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী, আইনজীবী মুজাহিদুল ইসলাম শাহিন। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ভিসির পক্ষে ছিলেন সিনিয়র আইনজীবী মাহবুবে আলম ও আইনজীবী মাসুদ হাসান চৌধুরী পরাগ। রাবি ভিসির পদে থাকার বৈধতা নিয়ে রিট করেন বিশ্ববিদ্যালয়টির সাবেক ছাত্র সালমান ফিরোজ ফয়সাল।
পরে আইনজীবী মুজাহিদুল ইসলাম শাহিন সাংবাদিকদের বলেন, অধ্যাপক ড. এম আব্দুস সোবহান রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় আইন ১৯৭৩-এর ১১(২) ধারা অনুসারে ২০১৭ সালের ৭ মে চার বছরের জন্য উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ পান। কিন্তু ১১(২) ধারা অনুযায়ী স্থায়ী (চার বছরের জন্য) নিয়োগের সুযোগ নেই। এ কারণে সাবেক ছাত্র সালমান ফিরোজ ফয়সাল হাইকোর্টে রিট করেন। শুনানি শেষে হাইকোর্ট রুল জারি করেছেন।
তিনি আরো বলেন, ১১(২) অনুসারে রাষ্ট্রপতি যেকোনো শিক্ষককে অস্থায়ী ভিত্তিতে নিয়োগ দিতে পারেন। তবে চার বছরের জন্য নিয়োগ দিতে হলে ১১ (১) ধারা অনুসারে তিনজনের প্যানেল থেকে একজনকে নিয়োগ দিতে হয়। কিন্তু তার ক্ষেত্রে এটা অনুসরণ করা হয়নি।


আরো সংবাদ