২৫ জানুয়ারি ২০২০

মির্জা ফখরুলসহ বিএনপির ২৩ নেতার আগাম জামিন

-

সুপ্রিম কোর্ট এলাকায় তিনটি মোটরসাইকেলে আগুনের ঘটনায় শাহবাগ থানায় দায়ের করা দুই মামলায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ২৩ নেতাকর্মীর আগাম জামিন মঞ্জুর করেছেন হাইকোর্ট। গতকাল রোববার বিএনপি নেতাদের আবেদনের পরিপেক্ষিতে হাইকোর্টের দুটি ডিভিশন বেঞ্চ তাদের আট সপ্তাহের আগাম জামিন মঞ্জুর করেন।
আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন সিনিয়র আইনজীবী জয়নুল আবেদীন, মাহবুব উদ্দিন খোকন ও রুহুল কুদ্দুস কাজল। তাদের সাথে ছিলেন সগীর হোসেন লিয়ন, এ কে এম এহসানুর রহমান ও তাহেরুল ইসলাম তৌহিদ প্রমুখ আইনজীবী।
আইনজীবী এহসানুর পরে সাংবাদিকদের বলেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ২৩ নেতাকর্মীর আট সপ্তাহের আগাম জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। এই সময়ের মধ্যে তাদের নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়েছে।
এদের মধ্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন ও বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বিচারপতি মো: রেজাউল হক ও বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ থেকে জামিন পান।
আর বিচারপতি মো: জাহাঙ্গীর হোসেন ও বিচারপতি রিয়াজউদ্দিন খানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ থেকে জামিন পান বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বরচন্দ্র রায়, দলটির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, হাফিজ উদ্দিন, যুগ্ম মহাসচিব হাবীব উন নবী খান সোহেল, খায়রুল কবির খোকন ও মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, জাতীয় কমিটির সদস্য নিপুণ রায় চৌধুরী ও শাহ আবু জাফর, শফিউল বারী বাবু, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, খন্দকার আবু আশফাক ও ইশতিয়াক আজিজ উলফতসহ ২১ জন।
প্রসঙ্গত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জামিন শুনানির আগের দিন গত ১১ ডিসেম্বর বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে পৌনে ৫টার মধ্যে হাইকোর্টের মাজার গেট, ঈদগাহ মাঠের গেট ও বার কাউন্সিলের গেটের সামনে তিনটি মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ১৩৫ জনকে আসামি করে শাহবাগ থানায় দুইটি মামলা দায়ের করা হয়।


আরো সংবাদ