২২ আগস্ট ২০১৯

যমুনায় নৌকাডুবি : এখনো নিখোঁজ ৬

জামালপুরের-দেওয়ানগঞ্জে ভিজিএফের চাল নিয়ে বাড়ি ফেরার সময় যমুনা নদীতে ডুবে যাওয়া ২৮ জন নারী পুরুষের মধ্যে ২২ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। অবশিষ্ট ৬ জনের এখনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। তবে স্থানীয় চুকাইবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান সেলিম খান জানান, আহত অবস্থায় একজন গাইবান্ধা সাঘাটা সরকারি হাসপাতালে এবং অন্য একজন ইসলামপুর সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে তিনি জানতে পেরেছেন। এখনো কারো মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি।

জানা গেছে, বুধবার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার চুকাইবাড়ী ইউনিয়নের চরহলকা হাওড়াবাড়ী গ্রামের একদল বন্যার্ত নারী-পুরুষ ভিজিএফের চাল নিতে আসেন ইউনিয়ন পরিষদে। তারা পরিষদ থেকে চাল নিয়ে নৌকায় করে সন্ধ্যায় বাড়িতে রওনা হন। চুকাইবাড়ী ইউনিয়নের ফুটানি বাজার নৌ-ঘাট থেকে ২৮ জন নারী পুরুষ শিশু বাহী একটি নৌকা চরহলকা হাওড়া বাড়ী গ্রাম মুখে রওনা দিলে মাঝপথে প্রচন্ড স্রোতে ও ঢেউয়ের তোড়ে নৌকাটি উল্টে যায়। এতে সব যাত্রী পানিতে ডুবে যায়। তাদের ডাক-চিৎকারে আশেপাশের মাছ ধরার নৌকাসহ বেশ কয়েকটি নৌকা তাদের উদ্ধারে এগিয়ে যায়।

পরে গভীর রাত পর্যন্ত ব্যাপক উদ্ধার অভিযান চালায় স্থানীয় প্রশাসন, ফায়ার সার্ভিস। বৃহস্পতিবার দুপুরে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ডুবে যাওয়া ২৮ জনের মধ্যে ২২ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। এখনো নিখোঁজ রয়েছে ৬ জন।

দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানার ওসি এম.এম মইনুল ইসলাম জানান, নৌকাডুবির ঘটনায় কারো মৃত্যুর খবর তার জানা নেই। নিখোঁজদের উদ্ধারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।


আরো সংবাদ