২৩ জানুয়ারি ২০২০

নেত্রকোনায় বাধার মুখে সদ্য চালু হওয়া বিআরটিসি বাস চলাচল বন্ধ

-

বাস মালিক-শ্রমিকদের বাধার মুখে নেত্রকোনা-ময়মনসিংহ সড়ক পথে সদ্য চালু হওয়া বিআরটিসির বিলাসবহুল ১০টি যাত্রীবাহী বাস বন্ধ হয়ে গেল। এতে ছাত্র, শিক্ষক, মুক্তিযোদ্ধা, বুদ্ধিজীবীসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার লোকজন তীব্র প্রতিবাদ, বিক্ষোভ, সভা-সমাবেশ অব্যাহত রেখেছেন।

অন্যদিকে জনস্বার্থের বিপরীতে বাস মালিক-শ্রমিকরা মঙ্গলবার বাস ধর্মঘট পালন করেছে। এমতাবস্থায় পরিস্থিতি উপ্তপ্ত হয়ে উঠেছে।

জনগণের দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতে গত রোববার থেকে নেত্রকোনা-ময়মসনিংহ সড়কপথে অত্যাধুনিক বিলাসবহুল ১০টি যাত্রীবাহী বাস চালু হবার পর বাস মালিক-শ্রমিকদের বাধার মুখে বন্ধ হয়ে যায়। এর প্রতিবাদ-সমাবেশে স্বতঃস্ফূর্তভাবে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার লোকজন অংশ নেন।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় পৌরসভার সামনের সড়কে নেত্রকোনাবাসীর ব্যানারে পৌরসভার মোড়ে ঘন্টাব্যাপী এই প্রতিবাদ-সমাবেশ পালিত হয়।

এই সময় বক্তব্য রাখেন, সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি হাবিবা রহমান খান শেফালী, স্বাবলম্বীর নির্বাহী পরিচালক বেগম রোকেয়া, মুক্তিযোদ্ধা হায়দার জাহান চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আমিন, উদীচীর সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, জেলা মহিলা পরিষদের সাম্পাদিকা তাহেজা বেগম, নারী নেত্রী কোহিনূর বেগম, প্রভাষক কামরুল হাসান, সাংবাদিক এ কে এম আব্দুল্লাহ, সাংবাদিক সঞ্জয় সরকার, সাংবাদিক আলপনা বেগম, সাংস্কৃতিক কর্মী শিল্পী ভট্টাচার্য, নেত্রকোনা সাহিত্য সমাজের সম্পাদক সাইফুল্লাহ এমরান প্রমুখ।

নেত্রকোনার সর্বসাধারণ পুনঃরায় বিআরটিসি বাস চালু না করা হলে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলার হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

অন্যদিকে বাস মালিক-শ্রমিকরা বিআরটিসি বাস বন্ধ রাখার জন্য মঙ্গলবার সকল প্রকার যাত্রীবাহী বাসের ধর্মঘট পালন করে। এতে জনমনে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।


আরো সংবাদ