১৮ নভেম্বর ২০১৯

৩ বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান সবচেয়ে বেশি প্লাস্টিক বর্জ্য ছড়াচ্ছে

৩ বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান সবচেয়ে বেশি প্লাস্টিক বর্জ্য ছড়াচ্ছে - ছবি : সংগৃহীত

বহুজাতিক কোম্পানিগুলির জন্য বিশ্বে ছাড়াচ্ছে প্লাস্টিক বর্জ্য। এই বহুজাতিক সংস্থাগুলোকে নিয়ে একটি গবেষণা করা হয়ে ছিল।

সেখানে দেখা গেছে, কোকাকোলা, পেপসি ও নেসলে-এই তিন সংস্থা বিশ্ব প্লাস্টিক বর্জ্য দূষণে শীর্ষে রয়েছে। পাশাপাশি প্লাস্টিক বোতল পরিষ্কার করে সেগুলিকে পুনরব্যবহারযোগ্য করে তোলার কোনও উদ্যোগ তারা নিচ্ছে না। ৫১টি দেশে সম্প্রতি 'ওয়ার্ল্ড ক্লিন আপ ডে' উপলক্ষ্যে করা গবেষণায় দেখা গেছে ৪৩ শতাংশই প্লাস্টিক বর্জ্য আসছে সুনির্দিষ্ট কয়েকটি কোম্পানি।

এই কোম্পানিগুলোর প্রথম দশের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে কোকাকোলা। ১১,৭৩২টি এসেছে চারটি মহাদেশের ৩৭টি দেশের বর্জ্য থেকে।ফিলিপিন্সের রাজধানী ম্যানিলায় এবিষয়ে একটি গবেষণা পত্র প্রকাশ হয়েছে। সেখানে উল্লেখ্য করা হয়েছে যে কোম্পানিগুলো প্লাস্টিক ব্যবহার বন্ধ করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হলেও তারা সেই জন্য পুরানো প্রযুক্তিগুলো বাতিল করতে চাইছে না।

চীন, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, ভিয়েতনাম ও শ্রীলঙ্কা বিশ্বের সবচেয়ে বেশি প্লাস্টিক বর্জ্য সমুদ্রে ফেলে।তবে এসব দেশে প্লাস্টিক বোতলে কী পরিমাণ পণ্য উৎপাদন হবে সেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসে বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর সদর দফরগুলো থেকে। সেগুলো ইউরোপ ও আমেরিকায় অবস্থিত।

কোকা-কোলা, পেপসি ও নেসলের পর মনদেলেজ ইন্টারন্যাশনাল, ফিলিপ মরিস ও পারফেট্টি ভ্যান মিল্লি শীর্ষ প্লাস্টিক বোতলে পণ্য তৈরি প্রতিষ্ঠান হিসেবে প্রথম দশে রয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠান প্লাস্টিক পণ্য উৎপাদনে পরিবেশের ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে তা স্বীকার করলেও তা উৎপাদন বন্ধ করে সমস্যার সমাধানে এগিয়ে আসেনি সংস্থাগুলো। দীর্ঘদিন ধরেই তারা প্লাস্টিক পণ্যের রিসাইক্লিং করার কথা বললেও তা বেশিদূর অগ্রসর হয়নি। ১৯৫০ সাল থেকে এপর্যন্ত মাত্র ৯ শতাংশ প্লাস্টিক পণ্য রিসাইক্লিং করা হয়েছে।

এভাবে প্লাস্টিক পণ্য উৎপাদন অব্যাহত থাকলে যেকোনো সময় সমুদ্র পরিবেশ নষ্ট হতে থাকবে। এ কারণে বিশ্বে ৬,১১১ জন ব্যক্তি ও ১,৪৭৫টি প্রতিষ্ঠান প্লাস্টিক পণ্য অবিলম্বে বন্ধ করার জন্যে আন্দোলন করতে চলেছে।
সূত্র : পূবের কলম


আরো সংবাদ