Naya Diganta

নারী শ্রমিকদের সমমর্যাদা দিল সৌদি আরব

সৌদি আরবের নারীরা পুরুষ অভিভাবকের অনুমতি ছাড়া বিদেশ ভ্রমণ করতে পারবে এমন ঘোষণার একদিন পরেই নারী শ্রমিকদের জন্য আরেকটি নতুন আইন চালুর ঘোষণা দিয়েছে দেশটি।

সৌদি গেজেট পত্রিকায় প্রকাশিত এক রিপোর্টে বলা হয়েছে, এখন থেকে দেশটিতে নারী ও পুরুষ শ্রমিকদের সমানভাবে বিবেচনা করা হবে। সৌদি শ্রম ও সামাজিক উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রণালয় নতুন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

নারী-পুরুষ শ্রমিক কিংবা কর্মচারী উভয়ই এখন থেকে সমানভাবে বিবেচিত হবে। যাদের অধীনে কিংবা তত্ত্বাবধানে তারা কাজ করবেন তাদেরকে অর্থের বিনিময়ে শ্রম কেনার সময় নারী-পুরুষ আলাদা করা যাবে না। যদি তাদের সঙ্গে দেখা নাও হয় কিংবা না দেখে।

দেশটির শ্রমিকদের জন্য প্রণীত নতুন এই নিয়ম অনুযায়ী বয়স, অক্ষমতা কিংবা লিঙ্গ ইত্যাদিকে বিবেচনায় নিয়ে মালিকপক্ষের কেউ কোনো শ্রমিকের সঙ্গে বৈষম্য করতে পারবে ন। কর্মখালি আছে এই মর্মে বিজ্ঞাপন দিয়ে কর্মী নিয়োগেরও সময়ও এই নিয়মটি মেনে চলতে হবে নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানকে।

এই নিয়ম চালু করা ছাড়াও সৌদি কর্তৃপক্ষ এখন থেকে আরেকটি নতুন নিয়ম চালু করেছে। নিয়ম অনুযায়ী পুরুষের ক্ষেত্রে অবসরের বয়সসীমা নির্ধারণ করা হয়েছে ৬০ বছর এবং নারীর ক্ষেত্রে সেটি ৫৫ বছর। কর্তৃপক্ষ আরও জানিয়েছে, অবসরপ্রাপ্ত কর্মীদেরকে ইনসুরেন্স এবং নিয়ম মেনে অন্যান্য সুবিধা দেয়া হবে।

আইনে আরও একটি বিষয় জারি করা হয়েছে যে, নারীরা যখন মাতৃত্বকালীন ছুটিতে থাকবেন তখন তাদের চাকরি বাতিল কিংবা চাকরি থেকে ছাঁটাই করা যাবে না। যদি তা করা হয় তাহলে সেটা হবে বেআইনি।