Naya Diganta

বিদায়ী ম্যাচে মাসাকাদজার ব্যাটিং তাণ্ডব দেখলো ক্রিকেট

সব চমক যেনো বিদায়ী ম্যাচের জন্য জমিয়ে রাখলেন। রীতিমতো আফগান বোলারদের উপর ব্যাটিং তাণ্ডব চালিয়েছেন জিম্বাবুয়ের ওপেনার ব্যাটসম্যান হ্যামিল্টন মাসাকাদজা।

৪ ছক্কা ও ২ চারে ২৭ বলে পূর্ণ  করেন হাফসেঞ্চুরি। আউট হওয়ার আগে ইনিয়সটি করেন আরো বড়। ৪২ বলে ৭১ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে দৌলত জারদানের বলে মোহাম্মদ নবীকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন মাসাকাদজা। ৫ ছক্কা ও চার বাউন্ডারিতে ইনিংসটি সাজান বিদায়ী ম্যাচ খেলা এই ব্যাটসম্যান।

এর আগে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে জিম্বাবুয়েকে ১৫৬ রানের লক্ষ্য দিয়েছে আফগানিস্তান। রহমানুল্লাহ গুরবাজের ঝড়ো ৬১ রানের ইনিংসের ওপর ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৫৫ রান সংগ্র করে আফগানরা।

শুক্রবার চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের পঞ্চম ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন আফগান অধিনায়ক রশিদ খান। বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ম্যাচটি শুরু হয়।

প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে হযরতউল্লাহ জাজাইকে সঙ্গে নিয়ে উড়ন্ত সূচনা করেন রহমানউল্লাহ গুরবাজ। ওপেনিং জুটিতে ৯.৩ ওভারে ৮৩ রানের ‍জুটি গড়েন তারা। কিন্তু এরপর ৭২ রান যোগ কতে হারায় তারা ৭ উইকেট।

২৪ বলে ৩১ রান করে সাজঘরে ফেরেন হযরতউল্লাহ। ভালো শুরুর পরও ওয়ান ডাউনে নেমে প্রত্যাশিত ব্যাটিং করতে পারেননি শফিকুল্লাহ। তিনি ফেরেন ১৩ বলে ১৬ রান করে।

ইনিংসের শুরু থেকে একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ৪০ বলে ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটি তুলে নেন রহমানউল্লাহ গুরবাজ। ফিফটির পর আরও বেশি আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করেন আফগান এ ওপেনার। তবে শেন উইলিয়ামসের বলে লেগ বিহাইন্ডে কাট করতে গিয়ে বোল্ড হয়ে ফেরেন তিনি। সাজঘরে ফেরার আগে ৪৭ বলে চারটি চার ও দৃষ্টি নন্দন চারটি ছক্কায় ৬১ রান করেন রহমানউল্লাহ গুরবাজ।

তার পরের দুই ওভারে আফগানরা হারায় মোহাম্মদ নবী (৪) আর নাজিবুল্লাহ জাদরানকে (৫)। এরপর আর কেউ সেভাবে ব্যাট হাতে ভয় ছড়াতে পারেননি। গুলবাদিন নাইব ৭ বলে ১০ আর রশিদ খান ৬ বলে ৯ রানে অপরাজিত থাকেন।

জিম্বাবুয়ের বোলারদের মধ্যে ক্রিস এমপুফু ৩০ রানের বিনিময়ে ৪ উইকেট শিকার করেন।