Naya Diganta

ইরানে রাশিয়ার নারী সাংবাদিক আটক

ইউলিয়া ইউজিক

ইরানে রাশিয়ার একজন নারী সাংবাদিককে আটক করা হয়েছে। কি কারণে তাকে আটক করা হয় সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু বলা হয়নি ইরান সরকারের পক্ষ থেকে। তবে এই ঘটনায় মস্কোয় নিযুক্ত ইরানি রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়।

রাশিয়ার রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত একটি টিভি চ্যানেল তেহরানের রুশ দূতাবাসের একজন মুখপাত্রের বরাত দিয়ে জানায়, ৩৬ বছর বয়সি রুশ সাংবাদিক ইউলিয়া ইউজিকের বিরুদ্ধে ইসরাইলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের পক্ষে গুপ্তচরবৃত্তি করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

তবে রাশিয়ার স্পুৎনিক বার্তা সংস্থা জানিয়েছে, ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আব্বাস মুসাভি শুক্রবার সাংবাদিকদের এক সংক্ষিপ্ত ব্রিফিংয়ে জানিয়েছেন, কিছু অসঙ্গতি সম্পর্কে প্রশ্ন করার জন্য ইউলিয়াকে আটক করা হয়েছে এবং তাকে শিগগিরই ছেড়ে দেয়া হবে।

অন্যদিকে ইরানি দূতকে তলবের বিষয়ে রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা শুক্রবার তার ফেসবুক পেজে লিখেছেন, তেহরানে রাশিয়ার নারী সাংবাদিক ইউলিয়া ইউজিকের আটক হওয়ার ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য জানার জন্য ইরানি রাষ্ট্রদূতকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে।

তেহরানস্থ রুশ দূতাবাসের মুখপাত্র আন্দ্রে গানেঙ্কো জানিয়েছেন, ইউলিয়ার বিরুদ্ধে ইসরাইলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের সঙ্গে সহযোগিতার অভিযোগ আনা হয়েছে বলে কোনো কথা আমরা শুনিনি। তিনি জানান, গত ২৯ সেপ্টেম্বর রোববার ইউলিয়া ইরানে পৌঁছালে তেহরানের ইমাম খোমেনী (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তার পাসপোর্ট জব্দ করা হয়। এরপর ২ অক্টোবর তাকে তেহরানের একটি হোটেল থেকে আটক করা হয়।

ওই রুশ সাংবাদিক তেহরানস্থ রাশিয়ার দূতাবাসের সঙ্গে সমন্বয় না করেই ইরান সফরে এসেছিলেন বলে জানান গানেঙ্কো। তিনি বলেন, সকল রুশ সাংবাদিককে ইরান সফরের আগে তেহরানস্থ রুশ দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।