Naya Diganta
সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রলীগ

গেস্টরুমে নির্যাতন করা হয় না সেখানে ভালো কিছু শেখানো হয়

সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রলীগ

বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোতে চলমান গেস্টরুমে শিক্ষার্থীদের নির্যাতন করা হয় না বরং তাদের সেখানে ভালো কিছু শেখানো হয় বলে দাবি করেছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ (ভারপ্রাপ্ত) সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য।
গতকাল বুধবার দুপুথরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালথয়ের মধুর ক্যাথন্টিথনে আয়োজিত এক সংবাদ সথম্মেলথনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের হত্যাকাণ্ডে গৃহীত ব্যবস্থার পর্যালোচনা এবং হত্যাকারীদের দ্রুত সময়ের মধ্যে শাস্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেন তারা।
লেখক ভট্টাচার্য বলেন, ‘গেস্টরুম ভালো সংস্কৃতি। এখানে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের অনেক নিয়মকানুন শেখানো হয়। ছাত্রলীগ এটাকে পজিটিভ হিসেবেই দেখছে। গেস্টরুমে নেগেটিভ কিছু অত্যন্ত কম হয়।
ফাহাদ হত্যা নিয়ে ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, বাংলাদেশে এত কম সময়ের মধ্যে কোনো হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করা নজিরবিহীন। ফাহাদের খুনিদের ইতোমধ্যে গ্রেফতার করে শাস্তির আওতায় আনা হচ্ছে। এটা অনেক বড় দৃষ্টান্ত। তিনি বলেন, আবরার হত্যাকাণ্ডের পরপরই আমরা দোষীদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি।
অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ৮ দফা দাবির মধ্যে একটি মাত্র দাবি আছে ছাত্রলীথগের সাথথে সংথশ্লিষ্ট। বাকিগুলো প্রশাসনের সাথে। প্রশাসনের কাছে তারা সেসব দাথবির বিষথয়ে কথা বলথবে। থতিথনি বথলেন, বুয়েটের শিক্ষকদের সাথে ছাত্রলীগের সম্পর্ক আরো ভালো করতে হথবে।
বুথয়েট ছাত্রলীথগের কথমিথটি স্থথগিত করথবে কী না এমন প্রশ্নের জবাথবে তিথনি বলেন, ক্যাম্পাসে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধের বিষয়ে আমরা কোনোভাবেই একমত হতে পারি না। শুধু আমরা কোনো ইউনিট সিদ্ধান্ত নিথয়ে কোনো অঘটন করথলে সে ক্ষেথত্রে আমরা সাংগঠথনিক ব্যবস্থা নিথতে পাথরি। দেশের প্রতিটি অর্জনে ছাত্রলীগের অবদান রয়েছে বলে এ সময় তিনি যোগ করেন।