Naya Diganta

মেনন ও তার স্ত্রীর পদত্যাগ চান মেয়র সাদিক

রাশেদ খান মেনন ও সাদিক আবদুল্লাহ

বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ বলেছেন, জনগণ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট দিতে পারেনি বলে সাবেক মন্ত্রী ও ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন যে অভিযোগ করেছেন তা দুঃখজনক। যদি মহান সংসদ নিয়ে তার প্রশ্ন থাকে তাহলে নীতি-নৈতিকতার দিক থেকে তাকে তার সহধর্মিনীসহ (সংরক্ষিত আসনের সদস্য লুৎফুন্নেসা খান) সংসদ সদস্য পদ থেকে অবিলম্বে পদত্যাগ করা উচিত।

বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের ১ ও ২৯ নম্বর ওয়ার্ডের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিটি মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাদিক আব্দুল্লাহ রোববার এসব কথা বলেন।

সাদিক আরও বলেন-মাদক, জুয়া ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করা হয়েছে। মহানগর আওয়ামী লীগের আওতায় যতগুলো ওয়ার্ড সম্মেলন হবে তাতে ভিন্ন দল থেকে আসা কাউকে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মতো পদে আসীন করা হবে না। যারা অনুপ্রবেশকারী ও অপকর্মের সাথে জড়িত, আওয়ামী লীগে তাদের ঠাঁই হবেনা। তিনি বলেন, সংগঠনকে ঢেলে সাজাতে হবে, সংগঠন নেতাকেন্দ্রীক পরিচালিত হতে পারেনা। সংগঠন বেঁচে থাকলে আমরাও বেঁচে থাকবো। তাই প্রধানমন্ত্রী যে শুদ্ধি অভিযান শুরু করেছেন, তাতে অপরাধী কেউই পার পাবেনা। যেহেতু প্রধানমন্ত্রী কোনো অপকর্মের দায় নেবেন না, সেহেতু তার কর্মী হয়ে আমিও কোনো অপকর্মের দায় নেবোনা। সাধারণ মানুষের কল্যাণে কাজ করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে যে শপথ নিয়েছি, তা থেকে আমি কোনোভাবেই পিছপা হবো না।

এর আগে সম্মেলন উদ্বোধন করেন বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল। ২৯ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও কাউন্সিলর ফরিদ উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট একেএম জাহাঙ্গীর।