২৩ আগস্ট ২০১৯

আফ্রিকার বৃহত্তম বায়ুশক্তি চালিত প্রকল্প চালু করছে কেনিয়া

-

আফ্রিকার সবচেয়ে বড় বায়ু বিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধন করেছে কেনিয়া। যার লক্ষ্য বিদ্যুৎ খরচ হ্রাস ও জীবাশ্ম জ্বালানি নির্ভরতা কমিয়ে আনা। কেনিয়ার প্রেসিডেন্ট উহুরু কেনিআত্তা বলেছেন, বিদ্যুৎ সরবরাহ ও কম খরচে বিদ্যুৎ সুবিধা পেতে সহায়তা করবে বায়ুশক্তি চালিত বিদ্যুৎকেন্দ্র।
এই প্রকল্পটি আগামী বছর থেকে ১০০ ভাগ সবুজ এনার্জি নিশ্চিত করার একটি উচ্চাকাক্সক্ষী লক্ষ্য পূরণে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। প্রেসিডেন্ট উহুরু কেনিআত্তা শুক্রবার তার ঘোষণায় বলেন, দেশটির বিদ্যুৎ সরবরাহকে ১৩ শতাংশে উন্নীত করার জন্য উত্তর কেনিয়াতে লেক তুর্কানার তীরে অবস্থিত ৩৬৫টি ঘূর্ণযন্ত্রের বিদ্যুৎকেন্দ্রটি নকশা করা হয়েছে, যা কম খরচে আরো কেনিয়ানদের বিদ্যুৎ সুবিধা পাওয়ার সুযোগ প্রদান করবে। কেনিয়ায় সাম্প্রতিক বছরগুলোতে নবায়নযোগ্য এনার্জি বাড়াতে দুর্দান্ত অনেক পদক্ষেপ নিয়েছে এবং নির্মল বিদ্যুৎ উৎপাদনে আফ্রিকার কয়েকটি দেশের মধ্যে কেনিয়া বেশ অগ্রগতি করছে বলে মনে করা হয়।
দেশে উৎপাদিত বিদ্যুতের ৭০ ভাগ বিদ্যুৎই হাইড্রোপাওয়ার ও জিওথার্মালসহ নবায়নযোগ্য উৎস থেকে আসে, যা বিশ্বের গড় পরিমাণের তিন গুণেরও বেশি। কিন্তু চারজন কেনিয়ানের মধ্যে একজনের বিদ্যুৎ ব্যবহারের সুযোগ নেই, যাদের বেশির ভাগই গ্রাম এলাকায় বসবাস করে। যাদের বিদ্যুৎ সংযোগ আছে তাদেরও কম সরবরাহের কারণে উচ্চ খরচ দিতে হয় এবং বারবার লোডশেডিংয়ে সম্মুখীন হতে হয়।
কেনিআত্তা বলেন, ‘আজকে আমরা আবার মহাদেশটিতে বিদ্যমান বাধাগুলো অতিক্রম করেছি, কারণ আমরা আফ্রিকার একক বৃহত্তম বায়ুচালিত বিদ্যুৎকেন্দ্র উন্মোচন করেছি। নবায়নযোগ্য এনার্জির ক্ষেত্রে অবশ্যই কেনিয়া বিশ্বব্যাপী নেতৃত্ব দেবে এতে কোনো সন্দেহের অবকাশ নেই।’ ২০২০ সালের মধ্যে দেশটিকে ১০০ ভাগ সবুজ এনার্জিতে পরিবর্তনের পরিকল্পনা ঘোষণা করে কেনিআত্তা বলেন, ৭৭৫ মিলিয়ন ইউএস ডলারের বায়ু বিদ্যুৎকেন্দ্রটি দেশটির সব নাগরিকের জন্য হাউজিং, স্বাস্থ্যসেবা, চাকরি ও খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যমাত্রায় সরকারকে পৌঁছাতে সহায়তা করবে।
গাছ লাগাতে সহায়তাকারী একটি বেসরকারি সংস্থা লেক তুর্কানা উইন্ড পাওয়ারের চেয়ারম্যান মুগো কিবাতি বলেন, ‘বিদ্যুৎ উৎপাদনের স্বাবলম্বীতা অর্জনের দিকে দেশের স্থায়ী অগ্রযাত্রায় এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকবে।’
সূত্র : আলজাজিরা


আরো সংবাদ