২৩ নভেম্বর ২০১৯

কাশ্মির ইস্যুতে এরদোগানের মন্তব্যে ক্ষোভ

মোদির তুরস্ক সফর বাতিল
-

কাশ্মিরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের ঘটনায় তুরস্কের অবস্থান ভারতের বিপক্ষে। সে দেশের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান চাইছেন, পাকিস্তানের সাথে আলোচনার মধ্য দিয়ে যেন সঙ্কটের সমাধান করা হয়। তুরস্কের সেই অবস্থানের সমালোচনা করে সে দেশের রাজধানী আঙ্কারায় সম্ভাব্য সফর বাতিল করেছেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।
এ বছর আগস্টের প্রথম সপ্তাহে (৫ আগস্ট) প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সাথে সাক্ষাতের পর ওই অনুচ্ছেদ বাতিলের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। একই দিনে কাশ্মিরকে দুই ভাগ করে সরাসরি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করতে রাজ্যসভায় একটি বিলও পাস করা হয়। এ ঘটনায় পাকিস্তানের পক্ষে অবস্থান নেয় তুরস্ক। জাতিসঙ্ঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগান বলেন, বিশেষ মর্যাদা বাতিলের মধ্য দিয়ে কাশ্মিরের ৮ মিলিয়ন মানুষকে কার্যত বন্দী করা হয়েছে। সঙ্কট নিরসনে এগিয়ে না আসায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমালোচনাও করেন তিনি। সেপ্টেম্বরে রাজধানী আঙ্কারায় পাকিস্তানের জন্য যুদ্ধজাহাজ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করতে গিয়ে এরদোগান কাশ্মির পরিস্থিতিকে ফিলিস্তিনের সাথে তুলনা করেন।
অক্টোবরের শেষ সপ্তাহে সৌদি আরব সফরে যাচ্ছেন মোদি। সেখান থেকে তার তুরস্কে যাওয়ার কথা ছিল। অবশ্য ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, এই সফর পরিকল্পনা কখনো চূড়ান্ত ছিল না। সে কারণে তা বাতিলেরও প্রশ্ন নেই। তবে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, কাশ্মির প্রশ্নে এরদোগানের আচরণের জেরে আপাতত সেই সফর বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নয়াদিল্লি।


আরো সংবাদ