২৩ আগস্ট ২০১৯

সেই ছাত্রলীগ নেত্রীকে অপহরণ চেষ্টার অভিযোগ

ছাত্রলীগ নেত্রী শ্রাবণী দিশার সংবাদ সম্মেলন - ছবি : নয়া দিগন্ত

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে পদবঞ্চিত হয়ে প্রতিবাদের কারণে খোদ সংগঠ‌নের নেতাকর্মী‌দের হামলার শিকার হওয়া রোকেয়া হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শ্রাবণী দিশাকে অপহরণ চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। রোববার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে আ‌য়ো‌জিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন দিশা।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ‘গৌরব ৭১’ এর সাধারণ সম্পাদক এফএম শাহীন। এদি‌কে, এ ঘটনায় শ‌নিবার রা‌তে রাজধানীর শাহবাগ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরিও করা হয়েছে (জিডি নম্বর- ১২০১)।

সংবাদ স‌ম্মেল‌নে শ্রাবণী দিশা বলেন, বদরুন্নেছা হল ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি এস কে রিমা তাকে ফোন করে বলেন, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল কথা বলতে চান। সন্ধ্যায় রিমা হাতিরপুলের একটি বাসায় শ্রাবণী দিশার কাছে যান; কিন্তু রিমার আচরণ দেখে তিনি বুঝতে পারেন নওফেলের কথা বলে তাকে বের করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা হচ্ছে। এসময় তড়িঘড়ি করে রিমা সেখান বেরিয়ে যান। পরে তারা জানতে পারেন মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বর্তমানে চীনে অবস্থান করছেন।

পরে এই ঘটনায় শ্রাবণী দিশা শাহবাগ থানায় জিডি করতে যান। এসময় ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে যার বিরুদ্ধে অভিযোগ সেই বদরুন্নেছা হল ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি এসকে রিমা বলেন, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নওফেল আমার কাছে ফোন করে শ্রাবণী দিশার নম্বর চান। পরে শ্রাবণী দিশা আমাকে ফোন করে হাতিরপুল এলাকায় একটি বাসায় যেতে বলেন। আমি সেখানে যাই। তার সঙ্গে আমার স্বাভাবিক কথা বার্তা হয়। অপহরণের কী হলো এখানে বুঝতেছি না। মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল দেশে অবস্থান করছেন বলেও জানান তিনি।

রোববারের সংবাদ সম্মেলনে শ্রাবণী দিশা বলেন, এখনও পর্যন্ত যার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছি তাকে গ্রেফতার করা হয়নি। যার কারণে আমি এখনও শঙ্কিত। এ বিষয়ে তিনি প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে তার ও তার পরিবারের নিরাপত্তা দাবি করেন।

গত সোমবারের মধুর ক্যান্টিনে হামলার সঙ্গে এই অপহরণ চেষ্টার কোনো যোগসূত্র রয়েছে কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ছাত্রলীগকে বিতর্কিত এবং প্রধানমন্ত্রীকে বিব্রত করার জন্যই এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

এ বিষয়ে শাহবাগ থানার ওসি আবুল হাসান বলেন, এরকম বিষ‌য়ে একটি জিডি করা হ‌য়ে‌ছে। আমরা ‌বিষয়‌টি তদন্ত করছি।

উল্লেখ্য, গত সোমবার ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করলে পদবঞ্চিত একটি অংশ বিক্ষোভ শুরু করে। রাতে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে বিবাহিত, ছাত্রদল ও চাকুরিজীবীদের পদ দেওয়া হয়েছে অভিযোগ করে সংবাদ সম্মেলন করতে যায়। এসময় তাদের ওপর পদপ্রাপ্তরা ও তাদের অনুসারীরা হামলা করে। এতে রোকেয়া হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শ্রাবণী দিশার চোখে আঘাত লাগে। এই ঘটনায় ছাত্রলীগের ১৪জন আহত হয়। এদের ম‌ধ্যে দিশার অবস্থা গুরুতর ছি‌লো।

দেখুন গতকালের একটি ভিডিও


আরো সংবাদ