১৩ নভেম্বর ২০১৯

প্লটের আবেদন প্রত্যাহার করে নিয়েছেন রুমিন

প্লটের আবেদন প্রত্যাহার করে নিয়েছেন রুমিন - ছবি : নয়া দিগন্ত

প্লটের আবেদন প্রত্যাহার করে নিয়েছেন সংরক্ষিত আসনে বিএনপির মহিলা সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা। মঙ্গলবার গৃহায়ন মন্ত্রী বরাবর এক চিঠিতে তিনি এই আবেদন করেন। বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান খবরটি নিশ্চিত করেছেন।

চিঠিতে তিনি বলেন, আমার দল, বাংলাদেশ জাতীয়তাবদী দল (বিএনপি)-এর প্রাণ তৃণমূলের নেতাকর্মী ও শুভাকাঙ্খীদের অনুভূতির প্রতি পূর্ণ শ্রদ্ধা জানিয়ে গত ৩ আগষ্ট, ২০১৯ তারিখ সংসদের দাপ্তরিক ফরম্যাটে করা আমার পূর্বাচলের প্লটের আবেদনটি আমি প্রত্যাহার করে নিচ্ছি। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ করা হলো।

রুমিন ফারহানার প্লটের আবেদন নিয়ে বিএনপি বিব্রত ছিল। মাঠ পর্যায়েও নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া তৈরি করে। এর প্রেক্ষিতে রুমিন ফারহানার এই সিদ্ধান্ত।

গত ৩ আগস্ট গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমের কাছে পাঠানো এক চিঠিতে তিনি প্লট চেয়ে আবেদন করে ছিলেন।

গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় বরাবর পাঠানো ওই আবেদনে রুমিন লিখেছিলেন ‘ঢাকাস্থ পূর্বাচল আবাসিক এলাকায় ১০ কাঠা প্লটের প্রয়োজন। ঢাকা শহরে আমার কোনো জায়গা/ফ্ল্যাট, জমি নাই। ওকালতি ছাড়া আমার অন্য আর কোনো ব্যবসা/পেশা নাই। আমার নামে ১০ কাঠা প্লট বরাদ্দের জন্য সুব্যবস্থা করে দিতে আপনার মর্জি হয়।’

রুমিন ফারহানা বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সহ–আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক। বিএনপির মনোনয়নে এবারই প্রথমবারের মতো সংসদ সদস্য হন তিনি। রুমিন গত ৯ জুন শপথ নেন।

প্লট চেয়ে আবেদনের বিষয়ে রুমিন ফারহানা বলেন, এটা হচ্ছে রাষ্ট্রীয় সুবিধা। এটা কোনো সরকারের কাছে চাওয়া না। রাষ্ট্রের কাছে চেয়েছি। রাষ্ট্রীয় পদের কারণে বেশ কিছু অধিকার হয়, যেমন-গাড়ি, প্লট। সরকার হয়তো তাকে দেবে না। তবুও আনুষ্ঠানিকতার জন্য আবেদন করেছি।

তিনি বলেন, মন্ত্রী এমপি না হয়েও কেউ কেউ শুল্কমুক্ত গাড়ি পেয়ে গেছেন। আর আমি আবেদন করার পরই চিঠি ভাইরাল হয়েছে। এটা বিরোধী রাজনীতিকে হেয় করার জন্য করা হয়েছে। এটা কোনো অবৈধ কাজ নয় জানিয়ে সংসদে বাকি যারা প্লট চেয়ে আবেদন করেছেন তাদের নামও প্রকাশের দাবি জানান এই বিএনপি নেত্রী।


আরো সংবাদ