১৭ অক্টোবর ২০১৯

গণতন্ত্র-খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে কঠোর আন্দোলন চান আইনজীবীরা

খালেদা জিয়া
খালেদা জিয়া - ছবি : সংগৃহীত

গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়ার মুক্তিসহ সব রাজনৈতিক মামলা প্রত্যাহারের জন্য আন্দোলন শুরু করতে যাচ্ছেন আইনজীবীরা। দেশের গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে এবং প্রায় দুই বছর ধরে কারাবন্দী বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য বিএনপি সমর্থক একাধিক আইনজীবী সংগঠন সব দল ও মতের আইনজীবীদের নিয়ে আন্দোলন গড়ে তোলার ঘোষণা দিয়েছেন। এ ব্যাপারে তারা ব্যাপকভাবে আইনজীবীদের মধ্যে সাড়া পড়েছে এবং তাদের সহযোগিতা পাচ্ছেন বলে আইনজীবী নেতারা জানিয়েছেন। সেই পরিপ্রেক্ষিতে সব শ্রেণীর আইনজীবীদের নিয়ে আগামী ২৬ অক্টোবর ঢাকায় আইনজীবীদের একটি মহাসমাবেশের ডাক দিয়েছে গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়া মুক্তি আইনজীবী আন্দোলন। অন্য দিকে অক্টোবর মাসের প্রথম সপ্তাহে আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করতে যাচ্ছে জাতীয় আইনজীবী ঐক্য ফ্রন্টÑ বলে সংগঠনটির নেতারা জানিয়েছেন। তারা বলেন, আন্দোলনকারী সব আইনজীবীকে নিয়ে কর্মসূচি দেয়া হবে। খালেদা জিয়ার মুক্তির ব্যাপারে আমরা কঠোর কর্মসূচিতে যাবো।

অন্য দিকে অতি শিগগিরই বিএনপি সমর্থক আইনজীবীদের মূল সংগঠন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের কমিটি হতে যাচ্ছে এবং এই সংগঠনের কমিটি হওয়ার পর সমমনা আইনজীবীরা একত্রে সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনে যাবে বলে সংশ্লিষ্ট আইনজীবী নেতারা জানিয়েছেন।
নেতারা বলেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসার ফলশ্রুতিতে মিথ্যা মামলা করে বর্তমান অবৈধ সরকার যেভাবে দেশে একটি চরম অরাজক পরিস্থিতির সৃষ্টি করছে তা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আইনজীবী সমাবেশ একটি ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। তাই হত্যা-গুম-ধর্ষণ-দুর্নীতিতে আবদ্ধ এই সরকারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর এই সুযোগে দলমত নির্বিশেষে আইনজীবীরা এগিয়ে আসবেন এবং আইনজীবী সমাবেশকে সফল করবেন।

এ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি ও বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান প্রবীণ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, দেশে বর্তমানে একটি অনির্বাচিত সরকার ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত। যেহেতু আমাদের সংবিধান অনুসারে সরকার জনগণ কর্তৃক নির্বাচিত হবে কিন্তু এই সরকার জনগণ কর্তৃক নির্বাচিত নয়। তাই সংবিধান অনুযায়ী এই সরকারের কোনো বৈধতা নেই। আইনজীবীরা সব সময় গণতন্ত্রের পূজারি এবং অন্যায় অত্যাচরের বিরুদ্ধে সোচ্চার। তাই এই অবস্থায় আইনজীবীদের পক্ষ থেকে কোনো সঙ্ঘবদ্ধ বা ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন এই সরকারের বিপক্ষে না থাকায় এবং হাজার হাজার রাজনৈতিক নেতাকর্মী শত শত মিথ্যা মামলায় জড়িত হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। তাই এই মুহূর্তে গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়াসহ সব রাজনৈতিক মামলা প্রত্যাহারের জন্য এবং গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য আইনজীবীরা যে আন্দোলন শুরু করেছেন ব্যাপকভাবে তা আইনজীবীদের মধ্যে সাড়া পড়েছে। সেই পরিপ্রেক্ষিতে আইনজীবীদের একটি মহাসমাবেশ ডাকা হয়েছে। আমি মনে করি গণতন্ত্রে বিশ্বাসী এবং রাজনৈতিক প্রতিহিংসার ফলশ্রুতিতে মিথ্যা মামলা করে বর্তমান অবৈধ সরকার যেভাবে দেশে একটি চরম অরাজক পরিস্থিতির সৃষ্টি করছে তা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য এই মহাসমাবেশ একটি ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। তাই হত্যা-গুম-ধর্ষণ দুর্নীতিতে আবদ্ধ এই সরকারের বিরুদ্ধে আইনজীবীরা রুখে দাঁড়ানোর এই সুযোগ দলমত নির্বিশেষে সবাই এগিয়ে আসবেন এবং সমাবেশকে সফল করবেন বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস।

এ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও জাতীয় আইনজীবী ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক সিনিয়র আইনজীবী জয়নুল আবেদীন বলেন, অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে আইনজীবীদের নিয়ে আমরা একটি মিটিং করে জাতীয়ভাবে কর্মসূচি দেবো। তিনি বলেন, সুপ্রিম কোর্ট খোলার আগেই সবাইকে নিয়ে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির ব্যাপারে জাতীয় ভিত্তিক কর্মসূচি করার সিদ্ধান্ত নেবো। এই জাতীয় ভিত্তিক কর্মসূচিতে সব দল ও মতের আইনজীবীরা থাকবেন। আমরা সবাই জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামে আছি। জাতীয় আইনজীবী ঐক্যফ্রন্ট, জাতীয় আইনজীবী পরিষদ, বিকল্প ধারাসহ আন্দোলনকারী সব আইনজীবীকে নিয়ে কর্মসূচি দেয়া হবে। খালেদা জিয়ার মুক্তির ব্যাপারে আমরা কঠোর কর্মসূচিতে যাবো।

এ বিষয়ে গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়া মুক্তি আইনজীবী আন্দোলনের মহাসচিব এ বি এম রফিকুল হক তালুকদার রাজা বলেন, আমরা অবিলম্বে খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই। গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং সারা দেশে বিরোধীদলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে আগামী ২৬ অক্টোবর সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে আইনজীবী মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। এই সমাবেশে দল-মত নির্বিশেষে সব আইনজীবীকে অংশ নেয়ার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে। তিনি বলেন, এতে আইনজীবী দেশবরেণ্য নেতৃবৃন্দ এবং সিনিয়র আইনজীবীরা অংশ নেবেন। আমরা গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়া মুক্তি আইনজীবী আন্দোলন কোনো রাজনৈতিক সংগঠন না। আমরা বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে আছি। তিনি বলেন, ২৬ অক্টোবর সমাবেশকে সামনে রেখে সারা দেশের যে আইনজীবী সমিতিগুলো রয়েছে সেখানে যাবো। আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর আমরা গাজীপুর ও ময়মনসিংহ ও টাঙ্গাইল বারে যাবো। সেখানে যারা আইনজীবী নেতৃবৃন্দ রয়েছেন তাদের সাথে সমাবেশ সফল করার জন্য মতবিনিময় করব। পর্যায়ক্রমে আমরা খুলনা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, সিলেট এবং রংপুরসহ বিভাগীয় বার ও জেলা বারসহ দেশের সব জেলা বারে সফর করব। এই সমাবেশ সফল করব।


আরো সংবাদ