২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০

নির্বাচনে কারচুপির শঙ্কা রয়েছে : তাবিথ আউয়াল

তাবিথ আউয়ালের জনসংযোগ - ছবি : নয়া দিগন্ত

বিএনপির প্রার্থীদের বিজয়ী করতে ভোটাররা মুখিয়ে আছে দাবি করে ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচনে ধানের শীষের তাবিথ আউয়াল বলেছেন, নির্বাচনে কারচুপির শঙ্কা রয়েছে। আমরা এখন দেখতে চাই নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোটগ্রহণে কী কী পদক্ষেপ নেয়। ইসি ভোটগ্রহণ পর্যন্ত পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখলে ধানের শীষের বিজয়ী অবশ্যম্ভাবী।

রোববার দুপুরে মিরপুর বিআরটিএ এলাকায় গণসংযোগ শুরু করেন ধানের শীষের প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। প্রার্থী এলাকায় পৌঁছার আগেই দলীয় নেতা-কর্মী ছাড়াও নানা বয়সী মানুষ জড়ো হতে থাকেন। বেলা ১২টায় তাবিথ আউয়াল পৌঁছলে মুহুর্মুর্হু করতালি আর স্লোগানে প্রকম্পিত হয়ে ওঠে পুরো এলাকা। বিভিন্ন ভবন আর বাসা-বাড়ি থেকে হাত নেড়ে শুভেচ্ছা জানান গৃহিণীরাও। উচ্ছ্বসিত হয়ে কেউ কেউ বারান্দা থেকে পুষ্পবর্ষণ করেন ধানের শীষের প্রার্থী তাবিথ আওয়ালের প্রতি। তাবিথ আউয়ালও দুই হাত তুলে হাসিমুখে মানুষের শুভেচ্ছার জবাব দেন।

তাবিথ আউয়াল এসময় বলেন, নির্বাচন কমিশন হিন্দু সম্প্রদায়ের জন্য ধর্মীয় আবেগ ও স্পর্শকাতর দিনে নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করেছিল। তবুও দেশবাসীর দাবির প্রেক্ষিতে তারিখ পরিবর্তন করায় ধন্যবাদ। আমরা যেকোনো তারিখে নির্বাচন করতে প্রস্তুত। কারণ, জনমত আমাদের পক্ষে। জনগণ ধানের শীষে ভোট দিতে উন্মুখ হয়ে আছেন।

গণসংযোগকালে বিভিন্ন পেশার মানুষজন তাবিথ আউয়ালের কাছে তাদের মনোভাবের কথা জানান। মিরপুর-১৩ হারম্যান কলেজের সামনে আনসার আলী নামে এক ফুসকা ব্যবসায়ী বলেন, আমরা তো ভোট দিবো। ভোট গণনায় হেরফের না করলে ধানের শীষ ৭০ শতাংশ ভোট পাবে। আর অন্যরা পাবে ৩০ শতাংশ।

পশ্চিম ভাষানটেক এলাকায় বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ত্বরান্বিত করতে ধানের শীষে ভোট চান তাবিথ। এ সময় সমিরন নামে এক নারী বলেন, খালেদা জিয়াকে অযথা আটকে রাখা হয়েছে। খালেদার জিয়ার মুক্তি আমরাও চাই। ধানের শীষে ভোট দিবো আমরা।

এদিন মিরপুর ১৩ নং বিআরটিএ’র বিপরীত পাশে বিদ্যুৎ গলি থেকে দলের নেতাকর্মীদের নিয়ে ধানের শীষের প্রচারণা শুরু করেন। এরপর কাফরুল, হারম্যান মেইনার কলেজ, কাফরুল এনএইচবি সড়ক, সবুজ উদ্যান ও ঈদগাঁও মাঠ, কাফরুল বাজার, শহীদ পুলিশ স্মৃতি কলেজ, মিরপুর ১৪ নং মোড়, টিনশেড মোড়, ডেন্টাল কলেজ, লালাসড়াই ভাষানটেক, জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন, মিরপুর সিআরপি, পশ্চিম ভাষানটেক বাজার, ভাষানটেক, মাটিকাটা, ইউসিবি চত্বর, মানিকদি আদর্শ বিদ্যানিকেত, মানিকদি বাজার, বালুঘাটসহ বিভিন্ন জায়গায় গণসংযোগ করেন।

মিরপুর ১৩ নম্বর হারমেইন কলেজ এলাকায় গণসংযোগকালে তাবিথ আউয়াল বলেন, আমরা একটি বাসযোগ্য ঢাকা উপহার দিতে চাই নগরবাসীকে। সেখানে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে। মানুষ নির্ভয়ে পথ চলতে পারবে।
এর আগে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ঢাকা সিটি করপোরশনের দুই মেয়র প্রার্থী ও দলের নেতাকর্মীদের নিয়ে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

আজকের কর্মসূচি
আজ সকাল ১০টায় ৭ নং ওয়ার্ডে মিরপুর ২ নং সেকশনের শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামের পাশে বায়তুল মোশাররফ জামে মসজিদ থেকে প্রচার কাজ শুরু হবে। তাবিথ আউয়ালকে নিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর গণসংযোগ করবেন।


আরো সংবাদ