২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০

গাম্বিয়াকে বিএনপির ধন্যবাদ

-

রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস (আইসিজে) সিদ্ধান্তের জন্য গাম্বিয়াকে ধন্যবাদ জানিয়েছে বিএনপি। বৃহস্পতিবার রাতে গুলশানে স্থায়ী কমিটির বৈঠকের পর বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর একথা জানান।

তিনি বলেন, ‘আজকের বৈঠকে আমরা গাম্বিয়াকে ধন্যবাদ জানিয়েছি এবং তাকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। তাদের উদ্যোগে আজকে ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস(আইসিজে) তাদের রায় দিয়েছেন, চারটি বিষয়ে মতামত দিয়েছেন। তারা মিয়ানমারকে বলেছেন যে, জেনোসাইড যেন আর না ঘটে এজন্য তাদেরকে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। আর যেন খারাপ না হয় সেই ব্যবস্থা নিতে হবে। এই মামলার শুনানী ও মিয়ানমারে বিরুদ্ধে গাম্বিয়া যে মামলা করেছে তার বিচারটা চলতে থাকবে।’

‘গাম্বিয়ার মামলার জন্য আন্তর্জাতিক আদালত এই রায় আদালত দিয়েছে। এজন্য আমরা দেশটিকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গণহত্যার অভিযোগ এনে গাম্বিয়ার করা এক আবেদনের প্রেক্ষিতে আইসিচের ১৭ সদস্যের বিচারক প্যানেল বৃহস্পতিবার অন্তর্বতীকালীন এই আদেশ দেন।

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গণহত্যার অভিযোগ এনে গাম্বিয়ার করা এক আবেদনের প্রেক্ষিতে আইসিজের ১৭ সদস্যের বিচারক প্যানেল বৃহস্পতিবার অন্তর্বর্তীকালীন এই আদেশ দেয়।

ভারতীয় সীমান্তে হত্যাকান্ডের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ অবিলম্বে এরকম হত্যাকান্ড বন্ধের দাবি জানিয়েছে স্থায়ী কমিটি।

‘ঢাকা সিটি নির্বাচন প্রসঙ্গ’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘বৈঠকে সিটি নির্বাচনে বিএনপি দলীয় মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়ালসহ কমিশনারদের প্রচারণায় হামলার ঘটনা এবং বিভিন্ন স্থানে তাদের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলার নিন্দা জানানো হয়েছে। তাবিথ আউয়ালের ওপরে শারীরিকভাবে হামলার ঘটনায় এখন পর্যন্ত নির্বাচন কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি, কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। এজন্য আমরা কমিশনের প্রতি ধিক্কার ও নিন্দা জানাচ্ছি।’

‘সবচেয়ে ন্যাক্কারজনক ঘটনা হচ্ছে তারা (কমিশন) বলছে যে, ভ্রাম্যমান ম্যাজিস্ট্রেটরা কাজ করছে। কোথাও কোনো ম্যাজেস্ট্রেট কাজ করছে বলে আমাদের জানা নেই। আপনারা দেখেছেন যে, বিরোধীদের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হয়, পোস্টারের যে সাইজ দেয়া হয়েছে তার চেয়ে বড় সাইজে ছাপানো হচ্ছে, ফ্যাস্টুন, রঙিন ব্যানার ঝুলানোর হচ্ছে। নির্বাচন কমিশন এসবের ব্যাপারে কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না।’

‘আমরা ইভিএম ব্যবহারের ব্যাপারে জোরালোভাবে আপত্তি জানিয়েছি। আমরা দুই দফা প্রতিনিধি কমিশনে গিয়ে আমাদের আপত্তির বিষয়টি জানিয়েছি। আজকে স্থায়ী কমিটির বৈঠকে ইভিএম বাতিল করার জন্য নির্বাচন কমিশনের কাছে দা্বি জানিয়েছি। আমরা মনে করি, এই ব্যবস্থাকে শুধু কারচুপি নয়, ফলাফল বদলিয়ে দেয়ার যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে যেটা এই মেশিনের মাধ্যমে করা সম্ভব।

স্কাইপে লন্ডন থেকে যুক্ত হওয়া তারেক রহমানের সভাপতিত্বে বৈঠকে খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, জমির উদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, উপস্থিত ছিলেন।


আরো সংবাদ