২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসায় বিশেষ আবেদনের কথা ভাবছে পরিবার 

-

কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসার জন্য সরকারের কাছে বিশেষ আবেদনের কথা ভাবছে পরিবার। শুক্রবার বিকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করার পর বোন সেলিমা ইসলাম সাংবাদিকেদর কাছে এ কথা বলেন।

এর আগে বিকাল পৌনে ৩টার দিকে খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করতে যান পরিবারের ৬ সদস্য। বিএসএমএমইউতে চিকিৎসা যথেষ্ট নয় উল্লেখ করে সেলিমা ইসলাম বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার বা হাতটা সম্পন্ন বেঁকে গেছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে অন্য কোথাও নিয়ে যেতে হবে। এই হাসপাতালে তার চিকিৎসা সম্ভব নয়। এখানের ডাক্তাররা চিকিৎসা দিচ্ছেন কিন্তু ওই চিকিৎসায় কোন কাজ হচ্ছে না।

পরিবারের পক্ষ থেকে সরকারের কাছে কোন আবেদন করবেন কিনা জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আমরা এখনো আবেদন করিনি। কিন্তু ওনার যে অবস্থা ওনার মুক্তি চেয়ে উন্নত চিকিৎসার বন্দোবস্ত করতে হবে। তার শরীর খুবই খারাপ। সে ব্যাথায় কোকাচ্ছেন। তার বা হাতটা সম্পূর্ণ বেঁকে গেছে। ডায়াবেটিস আজকেও ১৫। এইভাবে কতদিন চলবে। এভাবে বেশিদিন থাকলে তাকে জীবিত অবস্থায় বাসায় নিয়ে যেতে পারবো না। আজ প্রায় এক বছরের কাছাকাছি হতে যাচ্ছে। তারা চিকিৎসা দিচ্ছেন কিন্তু উন্নতি হচ্ছে না বরং দিনদিন অবনতি হচ্ছে। এর জন্য আমরা চাই উন্নত হাসপাতালে নিয়ে ওনার চিকিৎসা করা আর ওনাকে মুক্তি দেয়া।

আসন্ন ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে কোনো কথা হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে বলেন, তার শরীর এতো খারাপ যে সে তো কথাই বলতে পারছিলেন না। দেশবাসীর কাছে দোয়া প্রার্থনা করেছেন। পরিবারের অন্য সদস্যরা হলেন-বেগম খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার ও তার স্ত্রী কানিজ ফাতেমা, ছেলে অভিক ইস্কান্দার, বেগম খালেদা জিয়ার ভাই সাঈদ এস্কান্দারের স্ত্রী নাসরিন ইস্কান্দার এবং আরাফাত রহমান কোকোর শাশুড়ি ফেতেমা রেজা। তবে কারা কর্তৃপক্ষের অনুমতি না থাকায় আরাফাত রহমান কোকোর শাশুড়ি বেগম খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করতে পারেননি। 


আরো সংবাদ