২২ অক্টোবর ২০১৯, ৭ কার্তিক ১৪২৪, ১ সফর ১৪৩৯

অ ভি ম ত : দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা

-

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সংক্রামক রোগের মতো দুর্নীতি সমাজে ছড়িয়ে পড়েছে। তিনি দেশ থেকে মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও দুর্নীতি নির্মূল করতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিয়েছেন। এ ধরনের বক্তব্যকে দেশবাসী স্বাগত জানায়। জঘন্য অপরাধীরা কিভাবে অতি সহজেই জামিন পায়Ñ বিষয়টি ভেবে দেখা দরকার। রন্ধ্রে রন্ধ্রে দুর্নীতি আর এ দুর্নীতির সাথে সরকার ও ব্যাংকের লোকজন বেশির ভাগ ক্ষেত্রে জড়িত। রাজনৈতিক সদিচ্ছা ছাড়া দুর্নীতি দূর করা অসম্ভব। কারণ ক্ষমতাশালী লোকজন দুর্নীতি করে বেশি এবং সরকারি দলের রাজনীতিবিদেরাই সুযোগ-সুবিধা গ্রহণের মাধ্যমে দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দিয়ে থাকেন। প্রধানমন্ত্রীকে তার দলের লোকজনকে ডেকে বলা প্রয়োজন, ভবিষ্যতে দলের কেউ দুর্নীতি করলে তাকেও ছাড় দেয়া হবে না।
ছাত্রলীগের নেতৃত্ব সরানোর ব্যাপারে তাকে ধন্যবাদ। সরকারে দুর্নীতির ব্যাপারে জিরো টলারেন্স প্রশংসিত। নিজ দলের সংসদ সদস্য ও নেতাকর্মীদের মধ্যে সরকারের কঠোর অবস্থানের কথা প্রচার, কঠোরভাবে প্রয়োগের এবং হুঁশিয়ারির প্রয়োজন রয়েছে। দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর দৃঢ়তা অপশক্তিমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার ক্ষেত্রে ইতিবাচক। দুর্নীতি প্রতিরোধে মূলত সরকার কঠোর থাকলে দুর্নীতি দমন করা কোনোভাবেই অসম্ভব নয়। ঠিক তেমনি প্রশাসন কঠোর থাকলে মাদকও মাথাচাড়া দিয়ে ওঠার সুযোগ পাবে না। মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ, দুর্নীতি ইত্যাদির বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর সাম্প্রতিক নির্দেশনা অত্যন্ত সময়োপযোগী।
উল্লেখ্য, বিগত বছরগুলোতে বাঘা বাঘা দুর্নীতিবাজের বিচার হলেও ব্যাংকের টাকা লুটপাটে অভিযুক্ত অনেকে এখনো ধরা-ছোঁয়ার বাইরে কেন? দুর্নীতি, জঙ্গিবাদ, মাদক ও সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ, দখলবাজদের যথাযথ বিচার করা গেলে সমাজ তথা দেশে ভালো প্রভাব ফেলবে। ফলে এসব অপশক্তির বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রাখতে প্রধানমন্ত্রী যে নির্দেশ দিয়েছেন তা দেশের সামগ্রিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে সঠিক দিকনির্দেশনা, এর কোনো বিকল্প নেই। বিগত শাসন আমলে বা বর্তমান সরকারের আমলে যারা ইতোমধ্যে আঙুল ফুলে কলাগাছ হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে দুদকের তদন্ত কোনোভাবেই যেন বাধাগ্রস্ত না হয় সে দিকটাও দেখার অনুরোধ রইল।
দুর্নীতিগ্রস্ত সমাজ ও দেশ জাতি মোটেও প্রত্যাশা করে না। ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য মাদকমুক্ত সুস্থ সমাজ গঠনই সবার কাম্য।
মাহবুবউদ্দিন চৌধুরী


আরো সংবাদ