১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আইনি জটিলতায় নষ্ট হচ্ছে শতাধিক মোটরসাইকেল

আইনী জটিলতায় ধ্বংস হচ্ছে শতাধিক মোটরসাইকেল - ছবি : সংগৃহীত

রাজশাহীর পুঠিয়া থানায় আইনি জটিলতার কারণে খোলা আকাশের নিচে দীর্ঘ দিন যাবত পরে থেকে নষ্ট হচ্ছে শতাধিক মোটরসাইকেল। এর মধ্যে বেশির ভাগ বাইক বিভিন্ন মামলার আলামত ও রেজিস্টেশনবিহীন। থানা পুলিশ বলছেন বৈধ কাগজপত্র ও আদালতের নির্দেশনা ছাড়া জব্দকৃত বাইকগুলোর বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া সম্ভব নয়।

থানা সূত্রে জানা গেছে, বিগত ৮/৯ বছর আগে হাতে-গোনা কয়েকটি মামলার আলামত ও রেজিস্টেশন বিহীন মোটরসাইকেল ছিল। গত ২০১১ সালের ১৯ মার্চ উপজেলার শিবপুরহাট বাজারে পরলোকগত বিএনপির মহাসচিব খোন্দকার দেলোয়ার হোসেনের মৃত্যুতে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে বিএনপি।

একই সময় একই স্থানে স্থানীয় আ’লীগের নেতাকর্মীও এক সমাবেশের ডাক দেয়। এতে দু’গ্রুপের সংঘর্ষের আশঙ্কা থাকায় উপজেলা প্রশাসন সে স্থানে ১৪৪ ধারা জারি করেন। পরে বিএনপির কর্মীরা পার্শ্বের একটি আম বাগনে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেন। দোয়া মাহফিলকে কেন্দ্র করে সে সময় আ’লীগ-বিএনপির মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। সে সময় বিএনপির নেতাকর্মীদের প্রায় ৭৫টি মোটরসাইকেল আটক করে থানায় নিয়ে আসেন পুলিশ। এর মধ্যে যাদের বৈধ কাগজপত্র ছিল তারা থানা থেকে বাইক নিয়ে যায়। আর প্রকার কাগজপত্র না থাকায় প্রায় ৩০/৩৫টি মোটরসাইকেল থানা পুলিশ জব্দ করেন। এরপর থেকেই থানাতে জব্দকৃত মোটরসাইকেলের সংখ্যা বাড়তে থাকে। অপরদিকে গত ৭ বছরে পুলিশের বিশেষ অভিযানে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে অবৈধ প্রায় অর্ধশতাধিক মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়েছে। এর মধ্যে ছিনতাই ও মাদক মামলার আলামত হিসাবে রয়েছে প্রায় ২০/২৫ টি বাইক।

বুধবার সকালে সরেজমিনে দেখা গেছে, থানা ভবনের পূর্ব পার্শের মাঠে খোলা আকাশের নিচে সারিবদ্ধ ভাবে প্রায় শতাধিক মোটরসাইকেল রাখা আছে। দীর্ঘদিন যাবত কোনো প্রকার তদারকি না থাকায় ঝোপ-ঝড়ে রুপান্তিত হয়ে আছে। গুল্ম লতায় বাইক গুলো প্রায় ঢেকে যাচ্ছে। দীর্ঘদিন পড়ে থাকার কারণে বেশীর ভাগ বাইকই অকেজ হয়ে চলাচলের অযোগ্য হয়ে পরেছে।

তবে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাকিল উদ্দীন আহম্মেদ বলেন, বিভিন্ন মামলার আলামত হিসাবে ওই মোটরসাইকেল গুলো জব্দ করা হয়েছে। এছাড়া অনেক মোটরসাইকেল আছে যাদের বৈধ কোনো কাগজপত্র নাই। আর কাগজপত্র বিহীন জব্দকৃত মোটরসাইকেল গুলোর বিষয়ে থানার পক্ষ থেকে কোনো সুরাহা করা সম্ভব নয়। তবে আদালতের নির্দেশনায় অনেক সময় কিছু কিছু গাড়ী নিলামে বিক্রি হয়।


আরো সংবাদ