১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সংবাদ সম্মেলনে ড্যাব নেতাকে পুলিশের মারধর

বগুড়ার শিবগঞ্জে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়ছেন ড্যাব নেতা ডাঃ আশিক মাহমুদ ইকবাল স্বাধীন - নয়া দিগন্ত

বগুড়ার শিবগঞ্জে বিএনপি সমর্থিত চিকিৎসকদের সংগঠন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব) কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও সাবেক ছাত্রদল নেতা ডাঃ আশিক মাহমুদ ইকবাল স্বাধীন বুধবার পুলিশের মারধরের শিকার হয়েছেন। এসময় তার সংবাদ সম্মেলনও পন্ড করে দেয় পুলিশ। স্বাধীন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার তৎকালীন অ্য্যাসাইনমেন্ট অফিসার ডাঃ ফিরোজ মাহমুদ ইকবালের ছোট ভাই ।

স্থানীয় বিএনপি নেতাকর্মীরা জানান, সমঝোতার মাধ্যমে সবার কাছে গ্রহনযোগ্য কমিটির বদলে একজন ব্যক্তির ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটিয়ে শিবগঞ্জ উপজেলা ও পৌর বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি গঠনের প্রতিবাদ জানিয়ে বুধবার দুপুরে শিবগঞ্জ উপজেলা সদরের একটি পত্রিকা অফিসে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে বিএনপির বিরুদ্ধে নেতাকর্মীরা। এরপর শিবগঞ্জ থানা পুলিশ সেখানে বাঁধা দিলে পত্রিকা অফিস তালা দেয় কর্তৃপক্ষ। পরে শিবগঞ্জ পৌরসভা মার্কেটের সামনে দুপুর পৌনে একটায় সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ শুরু করেন ডাক্তার স্বাধীন। এসময় থানা পুলিশের পরিদর্শক (অপারেশন) নান্নু খানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ সেখানে গিয়ে সংবাদ সম্মেলন বন্ধ করতে বলে স্বাধীন সহ অন্য নেতাকর্মীদের উপর চড়াও হন। এসময় স্বাধীনকে মারধর করে সেখান থেকে তাড়িয়ে দেয় পুলিশ।

পুলিশ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত নেতাকর্মীদের সাথে হাতাহাতি শুরু করলে ডাঃ স্বাধীন বলেন, ওদের মারবেন না, আমাকেই অ্যারেস্ট করে নিয়ে যান। পরে পরিস্থিতি শান্ত হলে পুলিশ ও বিএনপির নেতা কর্মীরা ঘটনাস্থল থেকে চলে যান ।

সংবাদ সম্মেলনে ডাক্তার স্বাধীন বলেন, সম্প্রতি বিভিন্ন পত্রিকায় শিবগঞ্জ উপজেলা ও পৌর বিএনপির নতুন আহ্বায়ক কমিটি গঠনের সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। সদ্য ঘোষিত ওই কমিটিগুলো যথাযথ নিয়ম ও নীতিমালা না মেনে এবং ইতোপুর্বে বগুড়া জেলা বিএনপির আহ্বায়ক জিএম সিরাজ , যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট একেএম সাইফুল ইসলাম ও ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল, সিনিয়র নেতা বগুড়া পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট একেএম মাহবুবর রহমান ও সাবেক এমপি হেলালুজ্জামান তালুকদার লালুর উপস্থিতিতে যে গ্রহণনযোগ্য কমিটির প্রস্তাবনা ছিল তার সম্পুর্ণ বিপরীত। অথচ প্রস্তাবিত ও সবার কাছে গ্রহণযোগ্য কমিটিগুলো শিবগঞ্জের সাবেক উপজেলা সভাপতি মীর শাহে আলম ও বিএনপিনেতা এম আর ইসলামের স্বাক্ষরিত ছিল । স্বাধীন ঘোষিত শিবগঞ্জ উপজেলা ও পৌর কমিটি বাতিল করে সমঝোতার ভিত্তিতে সবার কাছে গ্রহণযোগ্য ও ত্যাগীদের নিয়ে আহ্বায়ক কমিটি গঠনের দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, শিবগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সদস্য ও যুবদল সভাপতি শফিকুল ইসলাম শাহীন, সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম, থানা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল্লাহ জুবায়ের, ছাত্রদল নেতা রানা, রায়হান , সদ্য বিলুপ্ত ইউনিয়ন ও পৌরসভার ওয়ার্ড নেতাদের মধ্যে ছিলেন আবুল কমিশনার, আমজাদ, সালাম , রফিকুল, জিল্লুর, মিঠু, মিলন, আলমগীর, সৈকত, জাহাঙ্গীর, জালাল মেম্বর, লুঃফর রহমান প্রমুখ।


আরো সংবাদ